ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন বাতিলের দাবি ন্যাপ মহাসচিবের

0
165

রাষ্ট্রচিন্তার সংগঠক দিদারুল ভুইয়া, লেখক মোশতাক আহমেদ ও কার্টুনিস্ট কবির কিশোরের গ্রেফতার ও ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা দায়েরের ঘটনায় তীব্র নিন্দা, প্রতিবাদ ও ক্ষোভ জানিয়েছেন বাংলাদেশ ন্যাশনাল আওয়ামী পার্টি-বাংলাদেশ ন্যাপ মহাসচিব ও জাতীয় কৃষক-শ্রমিক মুক্তি আন্দোলন আহ্বায়ক এম. গোলাম মোস্তফা ভুইয়া।একই সাথে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে গ্রেফতারকৃতদের অবিলম্বে নিঃশর্ত মুক্তির দাবি জানিয়েছেন তিনি। বৃহস্পতিবার (৭ মে) গণমাধ্যমে প্রেরিত এক বিবৃতিতে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, ভয়াবহ করোনা দুর্যোগকালে নাগরিকদের কন্ঠরোধ করার অপচেষ্টা সরকারের মধ্যকার চরম অস্থিরতা, অনাস্থার বহিঃপ্রকাশ। সামাজিক গণমাধ্যমে লেখা, মতামত দেয়া বা কার্টুন আঁকার জন্য নাগরিকদের তুলে নিয়ে যাওয়া ও তাদের বিরুদ্ধে হয়রানিমূলক মামলা দায়ের করা কোনো গণতান্ত্রিক ও জনগণের প্রতি দায়বদ্ধ কোনো সরকার এরকম নীতি গ্রহণ করতে পারে না।

তিনি বলেন, দুর্যোগকালীন সময়ে যেকোন তথ্যভিত্তিক সমালোচনা ও সরকারের ভুল ত্রুটি ধরিয়ে দেওয়াটাই যেকোন সচেতন ও দেশপ্রেমিক নাগরিকের দায়িত্ব। এই ধরনের সমালোচনা সহ্য করাও গণতান্ত্রিক সরকারের চরিত্র। বরং এই ধরনের সমালোচনা সহ্য করতে না পারাটা সরকারের দুর্বলতারই বহিঃপ্রকাশ।

গোলাম মোস্তফা ভুইয়া বলেন, ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে সম্পাদক, সাংবাদিক ও বিশিষ্ট নাগরিকদের মিথ্যা হয়রানিমূলক মামলা দেয়া নাগরিকদের মুক্ত চিন্তা, মতপ্রকাশের স্বাধীনতা, গণমাধ্যম ও সাংবাদিকতার টুঁটি চেপে ধরারই নামান্তর। করোনা দুর্ভোগে পড়া জনগণের জন্য বরাদ্দকৃত ত্রাণের চাল চুরির ঘটনার খবর গণমাধ্যমে প্রকাশ হওয়ার পর বিডিনিউজ২৪.কম সম্পাদক তৌফিক ইমরোজ খালিদী ও জাগোনিউজ ২৪.কম সম্পাদক মহিউদ্দীন সরকারের বিরুদ্ধে মামলা, তার আগে মানবজমিন সম্পাদক মতিউর রহমান চৌধুরীর বিরুদ্ধে মামলা, গুম হওয়া সাংবাদিক শফিকুল ইসলাম কাজলকে পিছমোড়া করে হাতকড়া লাগানো, ফেসবুকে কার্টুন আঁকা ও লেখার কারণে দিদারুল ভূইয়া, মোশতাক আহমেদ ও কবির কিশোরের বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা দায়ের ও গ্রেফতার নিবর্তনমূলক আইনের অপপ্রয়োগ ছাড়া আর কিছুই হতে পারে না।

বিবৃতিতে তিনি বলেন, নিবর্তনমূলক ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা রুজু করে সারাদেশে সাংবাদিক ও নাগরিকদের বিরুদ্ধে এইভাবে হয়রানি ও নিপীড়ন কোন গণতান্ত্রিক সরকারের চরিত্র হতে পারে না। নির্যাতন, নিপীড়ন, মিথ্যা মামলা ও কালো আইন প্রয়োগ, অপহরণ করে ব্যর্থতা আড়াল করা যায় না।

তিনি অনতিবিলম্বে নিপীড়ন ও হয়রানিমূলক ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন বাতিলের দাবি জানিয়ে সম্পাদকদের বিরুদ্ধে দায়ের করা মামলা প্রত্যাহার ও ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে গ্রেপ্তার সুনামগঞ্জে ত্রাণ নিয়ে দুর্নীতির রিপোর্ট করায় এস এ টিভির সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি ও হাওরাঞ্চলের কথা’র সম্পাদক এবং রাষ্ট্রচিন্তার সংগঠক দিদারুল ভূঁইয়া, কার্টুনিস্ট কিশোর, লেখক মোস্তাক, সাংবাদিক কাজলসহ ডিজিটাল আইনে গ্রেপ্তারকৃতদের নিঃশর্ত মুক্তি ও মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবি জানান।

আপনার মতামত লিখুন :