রাতে নিলামে উঠছে ‘কিং ব্যাক মুন্না’র ঐতিহাসিক জার্সি

0
137

অবশেষে চলে এলো সেই কাঙ্ক্ষিত সময়। দেশের ফুটবলপ্রেমীদের বড় একটা অংশ অপেক্ষায় ছিলেন কিংবদন্তি ফুটবলার প্রয়াত মোনেম মুন্নার ঐতিহাসিক জার্সির নিলামের। আজ রাত সাড়ে ১০টায় হবে সেই নিলাম। সর্বোচ্চ দাম হাঁকিয়ে যে কেউ কিনে নিতে পারবেন জার্সিটি।

এ জার্সি থেকে পাওয়া পুরো অর্থই খরচ করা হবে গরীব-দুঃখীদের সাহায্যের কাজে। তাই মোনেম মুন্নার স্ত্রী সুরভী মোনেমার চাওয়া জার্সিটি যেন সম্মানজনক দামে বিক্রি হয়। যাতে করে বেশি মানুষকে সাহায্য করতে পারেন তিনি এবং মুন্না স্মৃতি সংসদ।

মোনেম মুন্নার এ জার্সির বিশেষত্ব হলো, ১৯৮৯ সালের প্রেসিডেন্ট গোল্ডকাপে এটি পরেই খেলেছিলেন তিনি। কিংব্যাকখ্যাত এ ফুটবলারের সেই গোল্ডকাপজয়ী জার্সিই এটি। ফলে এর ঐতিহাসিক মর্যাদাও রয়েছে একটু ওপরে।

দেশের ফুটবলের অন্যতম সেরা এই তারকার ঐতিহাসিক জার্সিটির ভিত্তিমূল্য নির্ধারণ হয়েছে ২ লাখ টাকা। বাফুফে এবং নিলাম পরিচালনাকারী প্রতিষ্ঠান ‘অকশন ফর অ্যাকশন’ আলোচনা করে জার্সির ভিত্তিমূল্য ২ লাখ টাকা নির্ধারণ করেছে।

নিলামে কত টাকায় বিক্রি হলো জার্সিটি, তা নিয়ে তেমন কিছু ভাবছেন না সুরভী মোনেমা। জাগোনিউজকে তিনি বলেছিলেন, ‘১০ টাকায় বিক্রি হোক কিংবা ১০ লাখ টাকায়- সেটা আমার কাছে কিছু না। আমি মহৎ উদ্দেশ্য নিয়ে জার্সিটি বিক্রির ঘোষণা দিয়েছি। যে টাকায় বিক্রি হবে তা পাবে করোনায় ক্ষতিগ্রস্থ অসহায় মানুষ।’

তিনি আরও যোগ করেন, ‘তবে মোনেম মুন্না এই দেশের ফুটবলে অনন্য এক ব্যক্তিত্ব। আমি চাই জার্সির মূল্যটা মুন্নার নামের সঙ্গে মানানসই হোক। একটা সম্মানজনক দামেই কেউ যেন ওটা কিনে নেন। যিনি বেশি দাম বলবেন, তিনিই জার্সিটা পাবেন। তিনি যেই হোক। যত বেশি দামে বিক্রি হবে গরীব মানুষ তত উপকৃত হবে। আমার লক্ষ্য সেটাই।’

জার্সি থেকে পাওয়া অর্থ খরচ করার বিষয়ে তিনি বলেছেন, ‘আমি ভেবে রেখেছি, যে টাকায় বিক্রি হোক তার বড় একটা অংশ ‘মুন্না স্মৃতি সংসদের’ মাধ্যমে গরীব মানুষকে দেয়া হবে। এ ছাড়া আমার এবং মুন্নার অনেক পরিচিত মানুষ আছে যারা এখন কষ্টে, তাদেরও আমি সাহায্য করবো। সব কিছুর মালিক আল্লাহ। দেখা যাক কী হয়।’

আপনার মতামত লিখুন :