বাংলাদেশে ‘স্লেজিং মাস্টার’ দু’জন, কাদের কথা বললেন মুশফিক?

0
134

বৈধ, অবৈধ নিয়ে প্রশ্ন তুলে লাভ নেই। আজকাল ক্রিকেটে প্রতিপক্ষ দলের মনোযোগ-মনোসংযোগ নষ্ট করতে প্রায় সব দেশের ক্রিকেটাররাই মাঠে স্লেজিং নামক অস্ত্র ব্যবহার করেন।অস্ট্রেলিয়া তো এই জায়গায় সবচেয়ে এগিয়ে। এখন ভারতের খেলোয়াড়রাও কম করেন না। ইংল্যান্ড, দক্ষিণ আফ্রিকা, ওয়েস্ট ইন্ডিজ পাকিস্তান-তারাও কি পিছিয়ে? কম বেশি সব দলেই স্লেজিং করার মতো খেলোয়াড় আছেন।

নিশ্চয়ই অনেকের মনেই কৌতুহল, ‘আচ্ছা, বাংলাদেশ জাতীয় দলেও কি স্লেজিং চর্চা আছে? বাংলাদেশের ক্রিকেটাররাও কি স্লেজিং করেন? আর যদি করেন, তাহলে এই কাজে নেতৃত্ব দেন কে বা কারা ?

কাল রোববার রাতে সে কৌতুহল মিটিয়েছেন মুশফিকুর রহীম। জানিয়েছেন, বাংলাদেশের ক্রিকেটাররাও স্লেজিং করেন। টাইগাররাও প্রতিপক্ষ ক্রিকেটারদের মনোযোগ-মনোসংযোগ নষ্ট করতে এটা ওটা বলেন মাঠে।

ক্রীড়া সাংবাদিক নোমান মোহাম্মদের সাথে ফেসবুক লাইভে স্লেজিং প্রসঙ্গ ওঠতেই বাংলাদেশের কথা আসলো। যেখানে সঞ্চালক নোমান মোহাম্মদ জানতে চাইলেন, ‘আচ্ছা, বাংলাদেশের ক্রিকেটাররা মানে আপনারা কি স্লেজিং করেন না? এই কাজে সবচেয়ে বেশি দক্ষ কে? টিম মিটিংয়ে কাউকে দায়িত্ব দেয়া হয় না? প্রতিপক্ষ ক্রিকেটারদের উত্তপ্ত করার দায়িত্ব কার কার ওপর বর্তানো আছে?’

এসব প্রশ্নর জবাব দিতে গিয়ে মুশফিক জানান, টাইগাররাও স্লেজিং করেন। তিনিও নিজেও কম বেশি করেন। ২০০৭ সালের বিশ্বকাপে ভারতের বিপক্ষে ম্যাচে সৌরভ গাঙ্গুলিকে স্লেজিংয়ের কথা অকপটে স্বীকার করে মুশফিক বলেন, ‘আমি বলেছিলাম-দাদা, অনেক রান তো করলেন। আমরা ছোট ভাই, আমাদের সাথে একটু কম রান করেন না দাদা! প্রথমে কিছু না বললেও পরেরবার স্লেজিং করা হলে সৌরভ গাঙ্গুলি বলে ওঠেন- না, না। তোরা এখন আর ছোট নেই। তোরা এখন অনেক বড় হয়ে গেছিস।’

বাংলাদেশ দলে স্লেজিংয়ে দক্ষতার কথা বলতে গিয়ে মুশফিক দুটি নাম বলেছেন- এক তামিম, দুই নাসির। তবে এদের স্লেজিংয়ের ধরন ভিন্ন। তামিম ট্যাকটিক্যাল লাইনে কথা বলেন। আর নাসির নানা অঙ্গভঙ্গি করে ফিল্ডিংয়ের সময় অনর্গল বাংলায় কথা বলতেই থাকেন।

মুশফিকের ব্যাখ্যা, ‘আসলে আমাদের দলের স্লেজিং সে ভাবে হয় না। সে অর্থে কোন স্পেশালিস্টও নেই। আমাদের এরকম উগ্র স্লেজিং করার কেউ নেই। তামিম অনেক বলে থাকে, সে মাঝে মাঝে বলে। তবে সেটাও কৌশলে। নাসিরও অনেক কথা বলতো। নাসিরা তো সমানে বাংলা বলতেই থাকতো। তার অঙ্গভঙ্গি একটু অন্যরকম থাকতো। এছাড়া আরও কয়েকজন আছে। মাঝে মধ্যে একটু বলতো। এমনিতে আমাদের দলে অস্ট্রেলিয়ানদের মত স্লেজিং স্পেশালিস্ট কেউ নেই।’

আপনার মতামত লিখুন :