সরিয়ে ফেলা হলো বিতর্কিত ‌‘বুমেরাং’ ও ‘সদরঘাটের টাইগার’

0
163

দেশে তিনটি ওয়েব সিরিজ নিয়ে চলছে তুমুল আলোচনা-সমালোচনা। বিঞ্জ নামের নতুন দেশীয় অ্যাপের প্রযোজনায় নির্মিত ওয়েব সিরিজগুলো মুক্তি পেয়ে বিতর্কের ঝড় তুলেছে। ওয়েব সিরিজ তিনটি হলো- ওয়াহিদ তারিকের ‘বুমেরাং’, সুমন আনোয়ারের ‘সদরঘাটের টাইগার’ ও শিহাব শাহীনের ‘আগস্ট ১৪’।

বিতর্ক থামছেই না। তাই অবশেষে ওয়েব সিরিজ তিনটির দুটি বুমেরাং ও সদরঘাটের টাইগার সরিয়ে নেওয়া হলো অ্যাপ বিঞ্জ থেকে। আর কিছু দৃশ্য সংশোধন করে ‘আগস্ট ১৪’ অ্যাপে রাখা হয়েছে। বিষয়টি নিশ্চিত করেছে প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান রেড ডট ডিজিটাল লিমিটেড। এই প্রতিষ্ঠানের উদ্যোগেই চালু হয় দেশের প্রথম ভিডিও স্ট্রিমিং সাইট ‘বিঞ্জ’।

প্রতিষ্ঠানটির বিপণন প্রধান নূর ঈ তাজরিয়ান খান জানান, এরমধ্যে অ্যাপ থেকে পাইরেসি হয়ে ইউটিউবে ছড়িয়ে গিয়েছিল তাদের তিনটি সিরিজ। ইউটিউব থেকে সেগুলো বন্ধ করা হয়েছে বলে জানান তিনি।

নূর ঈ তাজরিয়ান খান বলেন, ‘আমরা পুরো বাণিজ্যিক কার্যক্রম এখনও শুরু করিনি। দেখছিলাম, দর্শকরা কেমন প্রতিক্রিয়া দেয়। কিন্তু সেটি পাইরেসি হয়ে ইউটিউব আর সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে যায়। পাইরেসির ফলে সর্বস্তরের দর্শকদের কাছে এটি চলে যায়। অথচ সবার জন্য এই সিরিজগুলো বানানো হয়নি।

তবুও সবার প্রতিক্রিয়ার প্রতি সম্মান জানিয়েই দুটো সিরিজ তুলে নিয়েছি অ্যাপ থেকে। আর ‘আগষ্ট ১৪’তেও কিছু পরিবর্তন আনা হয়েছে। সঙ্গে পাইরেসি রোধের জন্য সচেতন হয়েছি আমরা। মাত্র ওয়েব সিরিজ মাধ্যমটির যা্ত্রা শুরু হলো। ফলে কিছু ভুল-ত্রুটি হয়েছে হয় তো। এটা নিয়ে বিতর্ক থাকুক, আমরা চাই না।’

গেল ঈদে তিনটি ওয়েব সিরিজ নিয়ে ব্যাপক আলোচনা হয়। তিনটি সিরিজ নিয়েই অশ্লীলতার অভিযোগ ওঠে। এতে অভিনয়করা শিল্পী ও নির্মাতাদের প্রতিনিয়ত হেয় করার ঘটনাও ঘটে সোশ্যাল মিডিয়ায়।

তৈরি হয় ‘ওয়েব সিরিজ’ বা অ্যাপভিত্তিক নির্মাণের পক্ষ আর বিপক্ষ। এরমধ্যে পক্ষে ১১৮ জন নির্মাতা জোটবদ্ধ হয়ে বিবৃতি দেন সম্প্রতি। বিপরীতে ৭৯ জন বিশেষ ব্যক্তিত্ব এক হয়ে পাল্টা বিবৃতি দেন। এদিকে এতসব বিতর্কের মধ্যেই বিঞ্জ কর্তৃপক্ষ তাদের অভিযুক্ত দুটি সিরিজ নামিয়ে ফেলে এবং একটিতে পরিবর্তন আনে।

ডিরেক্টরস গিল্ডের সাধারণ সম্পাদক এসএ হক অলিক গণমাধ্যমকে বলেন, ‘সিরিজের নামে যে অশ্লীলতা করেছে সেটা অমার্জনীয়। কারণ, সিরিজগুলোর বিভিন্ন ক্লিপ এখন সোশ্যাল মিডিয়ায় ঘুরছে।’

আপনার মতামত লিখুন :