করোনা রোগীর জন্য মধ্যরাতে হাসপাতালে ছুটে গেলেন খোরশেদ দিলেন প্লাজমা

0
96

এবার এক করোনা রোগীকে নিজের প্লাজমা দিলেন নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের (নাসিক) ১৩ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর মাকসুদুল আলম খন্দকার খোরশেদ। মঙ্গলবার (২৩ জুন) দিবাগত রাতে রাজধানীর আনোয়ার খান মডার্ন মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে গিয়ে শাহীন আহমেদ (৫৫) নামে এক করোনা রোগীর জন্য প্লাজমা ডোনেশন করেন তিনি।এর আগে মধ্যরাতে ওই রোগীর আহ্বানে সাড়া দিয়ে প্লাজমা ডোনেশন করতে খোরশেদের প্লাজমা টিম হাসপাতালে ছুটে যায়। এর আগে এই টিম ২৯ জন করোনা রোগীকে প্লাজমা ডোনেশন করেছেন।

কাউন্সিলর মাকসুদুল আলম খন্দকার খোরশেদ বলেন, মানুষের প্রয়োজনে আমরা সব সময় প্রস্তুত আছি। এটি আমাদের ৩০ তম প্লাজমা ডোনেশন। আজ ‘বি’ পজিটিভ প্লাজমা প্রয়োজন ছিল। প্লাজমা ডোনেশন টিম প্লাজমা দিতে গেলে পরপর দুজন ডোনারের অ্যান্টিবডি পরীক্ষায় রিজেক্ট হয়। পরে মানবিক কারণে আল্লাহর রহমতে আমি নিজেই হাসপাতালে গিয়ে ২০০ এমএল প্লাজমা ডোনেশন করি। আল্লাহর কাছে শুকরিয়া যে আমি করোনা আক্রান্ত হয়ে সুস্থ হওয়ার পর দ্রুত আমার শরীরে অ্যান্টিবডি তৈরি হয়েছে।

কাউন্সিলর মাকসুদুল আলম খন্দকার খোরশেদ করোনা ও করোনার উপসর্গ নিয়ে মারা যাওয়া ব্যক্তিদের গোসল, জানাজা, দাফন ও সৎকারে ‘টিম খোরশেদ’ গঠন করেছেন। এখন পর্যন্ত টিম খোরশেদ ৮৭টি মরদেহ দাফন ও সৎকার করেছে। করোনায় মানবসেবায় কাজ করে যাচ্ছেন তারা।

করোনাকালে মানবসেবায় বিভিন্ন কার্যক্রমের জন্য কাউন্সিলর খোরশেদ ইতোমধ্যেই আলোচিত হয়ে উঠেছেন। গত ৩০ মে তার করোনা পজিটিভ রিপোর্ট আসে। দীর্ঘ ১৫ দিন পর করোনামুক্ত হন করোনাযোদ্ধা কাউন্সিলর খোরশেদ। করোনামুক্ত হয়েই নিজেকে মানবসেবায় নিয়োজিত করেছেন।

আপনার মতামত লিখুন :