ডিএনডি খাল খনন করতে গিয়ে অসাবধানতাবশত গ্যাসের পাইপ ভেঙ্গে ফেলেন সেনাবাহিনী

0
32

আব্দুল হালিম নিশাণ,সিদ্ধিরগঞ্জ থেকেঃ
নারায়ণগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জে চিটাগাংরোড হিরাঝিল এলাকায় ডিএনডি খাল খনন করতে গিয়ে গ্যাস পাইপের মূল অংশটি ছিড়ে ফেলেন সেনাবাহিনী। গত বৃহস্পতিবার ৩ ঘটিকার সময়ে হিরাঝিল এলাকার ডিএনডির সেচপ্রকল্পের অফিস সংলগ্নে। বাংলাদেশ সেনাবাহিনী খালটির ময়লা স্তুপ গুলো পরিষ্কার করতে গিয়ে, খালের মধ্যে থাকা গ্যাসের মূল সংযোগটি ভেঙ্গে ফেলেন। পানির মধ্যে থাকা গ্যাসের প্রকোপটি শতাধিক মাইল বেগে ছুড়তে থাকে।

সে ক্ষেত্রে এলাকায় গ্যাসের গন্ধে দশ গ্রামরে মানুষ অতিষ্ট হয়ে পড়েছেন। তেমনি যেনো ডিএনডির পার্শ্ববর্তী এলাকার ঘনবসতি বাড়ি-ঘর এবং আদমজী ইপিজেটের শত শত শ্রমিকদের পথচলায়। এলাকাটি ব্যাপক ভাবে ঝুঁকিপূর্ণ হতে চলেছেন। পথচারীরা কেহ কেহ আবার পথরোধ করে দাঁড়িয়ে চিত্রটি দেখছেন। এবং অনেকে আবার ধুমপানময়ী হচ্ছেন। সেক্ষে ঝুঁকিপূর্ণের হার ৮০% বেঁড়ে গেছে। এলাকার সাধারন মানুষ নিরাপত্তার হীনাতায় ভুগছেন। যে কোন মুহুর্তে অগ্নি কান্ডের ব্যাপক সৃষ্টি হতে পারে বলে জানাগেছে। এধরনের ঘটনা চিত্র গত তিন দিন যাবত পেরিয়ে গেলেও তিতাস কর্তৃপক্ষ বিষয়টি এখন পর্যন্ত আমলে নেননি।

স্থানীয়দের মতে জানাগেছে, নারায়ণগঞ্জের তিতাস কর্মকর্তাদের ব্যাপক দুর্নীতির অভিযোগ রয়েছে। তারা কোন প্রকার ভালো কাজের প্রতি নজর দেননি। তারা শুধুমাত্র অবৈধ গ্যাস বাণিজ্য যেখানে আছে , সেখানে তারা নজর দিয়ে উৎকোচ বাণিজ্য লুটিয়ে থাকেন। ডিএনডির এমন ভয়াবহ ঘটনায় এখন পর্যন্ত কোন প্রকার পদক্ষেপ গ্রহণ হয়নি। তাদের ভালো কাজের ক্ষেত্রে অনেক অবহেলা রয়েছে। এমন ব্যাপক ধরনের তথ্যে চিত্র রয়েছে তাদের বিরুদ্ধে জানান।

এ বিষয়ে ডিএনডি প্রজেক্টের দায়িত্বরত সেনাবাহিনী কর্মকর্তাদের কাছে কথা বলে জানাগেছে, তারা ডিএনডি খালের মধ্যে থাকা ময়লা স্তুপ গুলো পরিষ্কার করার লক্ষে এমন ধরনের ঘটনার স্বীকার হন। তবে অচিরেই বিচ্ছিন্ন সংযোগটি, সংযোগ দেওয়ার চেষ্টায় আছেন জানান।
নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের সিইওকে, মুঠোফোনে জানানোর চেষ্টা করলে তিনি কোন প্রকার মোবাইল ফোনে দায়িত্ববোধ গ্রহণ করনেনি।

না.গঞ্জ সদর নির্বাহী ইউএনও নাহিদা বারিকী বলেন, গত তিন দিন পেরিয়ে গেলেও এখন পর্যন্ত তিতাস আমলে নেননি। আমি তিতাস কর্মকর্তাকে এখনি বিষয়টি অবহিত করছি।

নারায়ণগঞ্জ জেলার ডিসি জসিম উদ্দিন বলেন, আমি জেলার তিতাস কর্মকর্তাদের এখননি বিষয়টি তৎপর হওয়ার জন্য বলছি।

আপনার মতামত লিখুন :