গাজীপুরে অপরিকল্পিত বিদ্যুৎ লাইন কেড়ে নিচ্ছে বহু গাছের প্রাণ

0
60
গাজীপুর প্রতিনিধি:
সবুজের শহর গাজীপুরে শিল্প বিপ্লবের কারণে ভারী সংযোগের চাহিদা বেড়েছে চোখে পড়ার মতো। গাজীপুরের সদরের বিভিন্ন স্থানে নতুন সংযোগ অথবা পরিবর্ধনের জন্য রাস্তার ধারে নির্মান করা হয়েছে উচ্চমানের বিদ্যুৎ লাইন। আর সেই লাইনের নিরাপত্তার জন্যই কেটে ফেলা হচ্ছে লাইনে আশেপাশে থাকা বিভিন্ন ফলজ, বনজ ও ঔষধি গাছ। গাছ পরিবেশের বন্ধু হলেও বিদ্যুৎ সরবরাহ কর্তৃপক্ষের সাথে মিত্রতা নেই বললেই চলে।
উপজেলার মির্জাপুর-পিরুজালী সড়কে লোহার ব্রীজ থেকে উত্তরে যেতেই রাস্তার দুই ধারে চোখে পরবে বছর খানেক আগে গাজীপুর পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি-২ এর অপরিকল্পিত সংযোগের কারণে প্রাণ হারানো কিছু তাল গাছের। বিদ্যুৎ সংযোগ পরবর্তীতে স্থান পরিবর্তন করলেও প্রাণ ফিরে পায়নি তালগাছ গুলো। মৃত্যুর পরেও ঠায় দাঁড়িয়ে আছে অপরিকল্পনার সাক্ষী হয়ে। ঠিক এমনই ঘটনার পুনরাবৃত্তি হতে চলেছে হোতাপাড়া-পিরুজালী সড়কে দু ধারে, সম্প্রতি বৈদ্যুতিক তার টানাতে গিয়ে দেখা যায়, প্রতিটি গাছে লেগে থাকে।
ফলে তারা কোনো নিয়মনীতির তোয়াক্কা না করেই সরকঘাট ব্রীজ থেকে পুর্বে আস ২০টির বেশি ফলবান তাল গাছের পাতা ও মুকুল ছাটাই করে দেয়, হয়ত কিছুদিন পর প্রয়োজন হবে মুন্ডন বা কর্তনের।পিরুজালী ইউপি সদস্য আজাহারুল ইসলাম আক্ষেপ করে বলেন, ‘অপরিকল্পিতভাবে লাইন নির্মাণ করায় গাছগুলো কেটে ফেলা হচ্ছে। অথচ পরিকল্পিতভাবে লাইন নির্মাণ করা হলে গাছগুলো বাঁচানো যেত। সমাজের সচেতন ব্যাক্তি হিসেবে আমি বিদ্যুতায়নের পাশাপাশি পরিবেশও সংরক্ষণ ও গাজীপুর পবিস-২ কে আরো উন্নত প্রযুক্তি ব্যাবহারের দাবি জানাচ্ছি।’
এ বিষয়ে গাজীপুর পবিস-২ এর সদর দপ্তরের ডিজিএম জনাব খন্দকার মাহমুদুল এর কাছে গাছ বাঁচানোর পদ্দক্ষেপ বিষয়ে যানতে চাইলে তিনি বলেন “গাছ ছাটাই ও কর্তন করতেই হবে, এর কোন বিকল্প নেই”
গাজিপুর সদরের উপজেলা নির্বাহি কর্মকর্তা জনাব আব্দুল্লাহ আল জাকী কে অবগত করলে তিনি বাংলাভূমিকে ২রা জুলাই জানান “যদিও বিদ্যুৎ সরকারের একটি উল্লেখযোগ্য উন্নয়ন প্রকল্প, তবুও যথাসম্ভব পরিবেশকে রক্ষা করে বিদ্যুৎ সংযোগ ব্যবস্থাপনা করার জন্য পল্লী বিদ্যুৎ কর্তৃপক্ষের সাথে আজই আলোচনা করব “
আপনার মতামত লিখুন :