আল-জাজিরায় সাক্ষাৎকার দেয়া বাংলাদেশির বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা

0
71

মালয়েশিয়ায় মো. রায়হান কবির নামে এক বাংলাদেশির বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেছে দেশটির সরকার। তাকে ধরিয়ে দিতে দেশটির ইমিগ্রেশন বিভাগ ও পুলিশের আইজি গণমাধ্যমে বিবৃতি দিয়েছেন।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, সম্প্রতি কাতারভিত্তিক আল-জাজিরা টেলিভিশনে অভিবাসীদের নিয়ে একটি সাক্ষাৎকার দেয়াকে কেন্দ্র করে মালয়েশিয়া ছাত্রলীগের সাবেক ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক মো. রায়হান কবিরকে (২৫) খুঁজছে দেশটির সর্বোচ্চ অথরিটি। তাকে ধরিয়ে দিতে দেশটির ইমিগ্রেশন বিভাগ ও পুলিশের আইজি সকলের সহযোগিতা চেয়ে গণমাধ্যমে বিবৃতি প্রকাশ করেছেন।

বিবৃতিতে বলা হয়েছে, আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম আল-জাজিরা টেলিভিশনে মো. রায়হান কবির দেশটিতে থাকা অবৈধ অভিবাসীদের বিষয়ে সরকারকে জড়িয়ে মিথ্যা ও ভিত্তিহীন সাক্ষাৎকার দিয়েছেন।

মঙ্গলবার (৭ জুলাই) মালয়েশিয়ার জাতীয় বার্তা সংস্থা বারনামা এই তথ্য নিশ্চিত করেছে।

মালয়েশিয়ায় বসবাসরত অভিবাসীদের প্রতি দেশটির আইনশৃঙ্খলা বাহিনী কর্তৃক চলতি লকডাউনে বৈষম্যমূলক ও বর্ণবাদী আচরণ করা হয়েছে বলে ‘লকডআপ ইন মালয়েশিয়া’স লকডাউন’ শিরোনামে ২৫ মিনিটের একটি ডকুমেন্টারি সম্প্রতি আল-জাজিরা টেলিভিশনে প্রকাশিত হয়। এই প্রতিবেদনটি প্রচারিত হওয়ার পর মালয়েশিয়া সরকার তীব্র নিন্দা জানিয়ে প্রতিবেদনকে ‘ভিত্তিহীন ও মিথ্যাচার’ অভিহিত করেছে। স্থানীয় সংবাদমাধ্যমকে দেয়া এক বিবৃতিতে দেশটির প্রতিরক্ষামন্ত্রী দাতো সেরী ইসমাইল সাবরি ইয়াকুব প্রতিবেদনকে ‘নির্লজ্জ মিথ্যাচার’ দাবি করে আল-জাজিরা টেলিভিশনকে মালয়েশিয়ার জনগণের কাছে ক্ষমা চাওয়ার আহ্বান জানান।

এ বিষয়ে মালয়েশিয়ার ইন্সপেক্টর জেনারেল অব পুলিশ (আইজি) তান শ্রি আবদুল হামিদ বদর বলেছেন, রাষ্ট্রদ্রোহিতাসহ বেশ কয়েকটি অপরাধের জন্য রায়হান কবিরের বিরুদ্ধে চার্জ গঠন করেছে পুলিশ। এ সময় তিনি মামলাগুলোর তদন্তের স্বার্থে তাকে ধরিয়ে দেয়ার আহ্বান জানিয়ে কয়েকটি হটলাইন নম্বর দেন যোগাযোগ করার জন্য।

এদিকে দেশটির অভিবাসন বিভাগের প্রধান দাতুক খায়রুল দাজায়মি দাউদ এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানান, মালয়েশিয়ার ভাবমূর্তি ক্ষুণ্নকারীদের বিরুদ্ধে ভিসা বা পারমিট বাতিলসহ প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে এবং পাশাপাশি মিডিয়ায় বক্তব্য দেয়ার ক্ষেত্রে অভিবাসীদের কঠোরভাবে সতর্ক করে দেয়া হবে।

তিনি আরও বলেন, দেশে প্রচলিত আইন অনুযায়ী অবৈধ অভিবাসীদের আটক করা হয়েছে এবং তাদের ডিটেনশন ক্যাম্পে রাখার সময় কোভিড-১৯ আক্রান্ত হওয়ার পর সরকার তাদের বিনামূল্যে চিকিৎসা দিয়ে সুস্থ করেছে। এ বিষয়ে সংশ্লিষ্ট দেশের দূতাবাসগুলো প্রশংসা করেছে।

অভিবাসন বিভাগের সংবাদ বিজ্ঞপ্তির সঙ্গে রায়হান কবিরের ছবি, বয়স, তার পাসপোর্ট নম্বর, দেশের নাম ও বর্তমান কুয়ালালামপুরে অবস্থানের ঠিকানা সংযুক্ত করে তাকে ধরিয়ে দেয়ার জন্য বলা হয়েছে। পাশাপাশি কয়েকটি হটলাইন নম্বর চালু করেছে সংশ্লিষ্ট বিভাগ।

এ ঘটনার পর মালয়েশিয়ায় বসবাসরত লাখ লাখ বাংলাদেশি প্রবাসীদের মাঝে উদ্বেগ-উৎকণ্ঠা বিরাজ করছে। খোজঁ নিয়ে জানা গেছে, রায়হান মালয়েশিয়া ছাত্রলীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্বে ছিলেন। পরে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ তাদের কমিটি বিলুপ্ত ঘোষণা করার পর মালয়েশিয়া আওয়ামী লীগের একটি অংশের প্রস্তাবিত সাংগঠনিক সম্পাদক তিনি।তার বিরুদ্ধে এর আগে বাংলাদেশি অপহরণ করার অভিযোগে মামলা হয়েছে এবং একাধিকবার মালয়েশিয়ায় জেল খেটেছেন।

আপনার মতামত লিখুন :