করোনায় মারা গেলেন ফরিদপুর জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান

0
38

করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে ফরিদপুর জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. লোকমান হোসেন মৃধা ইন্তেকাল করেছেন। ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন। শুক্রবার (১০ জুলাই) বেলা ১১টায় ঢাকার শেখ রাসেল গ্যাস্ট্রোলিভার ইনস্টিটিউট হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৭৬ বছর।

তিনি স্ত্রী, ৪ ছেলে, ১ মেয়ে ও আত্মীয়-স্বজনসহ অসংখ্য গুণগ্রাহী রেখে গেছেন। তার মৃত্যুতে শহরজুড়ে শোকের ছায়া নেমে এসেছে।

লোকমান হোসেন মৃধা জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি ও রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটির সভাপতিসহ বিভিন্ন সমাজসেবা প্রতিষ্ঠানের দায়িত্ব পালন করে আসছিলেন।গত ২২ জুন করোনা উপসর্গ নিয়ে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের করোনা ইউনিটে ভর্তি হন মো. লোকমান হোসেন মৃধা। সেখানে তার করোনা টেস্ট করা হলে ২৩ জুন পজিটিভ রিপোর্ট আসে। ফরিদপুরে করোনা ডেডিকেটেড হাসপাতালেই চিকিৎসাধীন ছিলেন তিনি। বেশি অসুস্থ হয়ে পড়লে ২৪ জুন তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকার শেখ রাসেল গ্যাস্ট্রোলিভার হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়। সেখানেই চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

ফরিদপুরের জেলা প্রশাসক অতুল সরকার বলেন, শুক্রবার বেলা ১১টার সময় তিনি মারা যান। তিনি ২০১৭ সালের ২৩ জুন ফরিদপুর জেলা পরিষদের চেয়ারম্যানের দায়িত্ব গ্রহণ করেন।

ফরিদপুর জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মুক্তিযোদ্ধা মো. লোকমান হোসেন মৃধার মৃত্যুতে ফরিদপুর সদর আসনের সংসদ সদস্য ইঞ্জিনিয়ার খন্দকার মোশাররফ হোসেন, ফরিদপুর-২ আসনের সংসদ সদস্য সংসদ উপনেতা সৈয়দা সাজেদা চৌধুরী, ফরিদপুর-১ আসনের সংসদ সদস্য মনজুর হোসেন বুলবুল, ফরিদপুর-৪ আসনের সংসদ সদস্য মুজিবুর রহমান চৌধুরী নিক্সন, জেলা প্রশাসক অতুল সরকার, পুলিশ সুপার মো. আলীমুজ্জামানসহ ফরিদপুর জেলা আওয়ামী লীগ ও অঙ্গ সংগঠনের নেতৃবৃন্দ, মুক্তিযোদ্ধা সংসদ, চেম্বার অব কমার্স, আইনজীবী সমিতিসহ বিভিন্ন সংগঠনের নেতৃবৃন্দ গভীর শোক প্রকাশ করেছেন।

আপনার মতামত লিখুন :