স্প্যানিশ লা লিগা চ্যাম্পিয়ন রিয়াল মাদ্রিদ

0
51

মঞ্চটা প্রস্তুতই ছিলো। অপেক্ষা ছিলো রিয়াল মাদ্রিদের শিরোপা হাতে নেয়ার আনুষ্ঠানিকতা। ঘরের মাঠে ভিয়ারিয়ালকে হারাতে কোন ভুল করেনি সার্জিও রামোসের দল। যার ফলে দুই বছর পর স্প্যানিশ লা লিগার শিরোপা জিতে নিয়েছে জিনেদিন জিদানের শিষ্যরা।

বৃহস্পতিবার রাতে রিয়ালের সমীকরণটা ছিলো জিতলে আজই নিশ্চিত শিরোপা, হারলে বা ড্র করলে অপেক্ষা করতে হবে রোববার রাতের ম্যাচের। দ্বিতীয় কোন পথের জন্য অপেক্ষা করেনি স্পেনের সফলতম ক্লাবটি। ভিয়ারিয়ালকে ২-১ গোলে হারিয়েই নিজেদের ৩৪তম লিগ শিরোপা নিশ্চিত করেছে রিয়াল মাদ্রিদ।

স্পেনের সফলতম ক্লাব তারা আগেই ছিল। নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বার্সেলোনার (২৬) চেয়ে ৭টি বেশি লিগ শিরোপা জেতা ছিল তাদের। চলতি মৌসুমের লা লিগা জিতে ব্যবধানটা আরও বাড়িয়ে নিল লস ব্লাঙ্কোসরা।

ঘরের মাঠে ভিয়ারিয়ালের বিপক্ষে ম্যাচে শুরু থেকেই জয়ের জন্য বাড়তি উদ্যমী দেখা যায় রিয়ালকে। মিনিট দশেকের মধ্যেই তৈরি করে দুইটি দারুণ সুযোগ। তবে কাজে লাগাতে পারেনি সেগুলো। ফলে পাওয়া হয়নি গোল, বাড়তে থাকে অপেক্ষা।

সেই অপেক্ষা বেশি বাড়তে দেননি ফ্রেঞ্চ স্ট্রাইকার করিম বেনজেমা। ম্যাচের ২৯ মিনিটে লুকা মদ্রিচের পাস থেকে প্রতিপক্ষ গোলরক্ষককে বোকা বানিয়ে চলতি লিগে নিজের ২০তম গোলটি করেন এ ফরাসি তারকা। পরে তার পা থেকেই আসে জয়সূচক গোলটিও।

ম্যাচের ৭৭ মিনিটের সময় করা গোলটি ছিল ঘটনাবহুল। ডি-বক্সের মধ্যে রামোস ফাউলের শিকার হলে পেনাল্টি পায় রিয়াল। স্বভাবতই শট নিতে এগিয়ে যান রামোস। তবে তিনি গোলবারে না মেরে আলতো টোকায় পাস বাড়িয়ে দেন বেনজেমার উদ্দেশ্যে, সেটি জালেও জড়ান বেনজেমা।

কিন্তু প্রতিপক্ষের আপত্তির মুখে বাতিল হয়ে যায় গোলটি। কেননা রামোস শট করার আগে ডি-বক্সে ঢুকে পড়েছিলেন বেনজেমা। ফলে আবার নিতে হয় পেনাল্টি শট। এবার স্পটকিক নেন বেনজেমা নিজেই। লিগে নিজের ২১তম গোলের মাধ্যমে দলের জয়টাও একপ্রকার নিশ্চিত করে ফেলেন তিনি।

তবে ম্যাচের শেষদিকে উজ্জীবিত ফুটবল খেলতে শুরু করে ভিয়ারিয়াল। ৮৩ মিনিটের সময় একটি গোল শোধ করেন ভিসেন্তে ইবোরা। এর মিনিট পাঁচেক পর জোড়া সুযোগ নষ্ট করে তারা। না হয় বাড়তে পারতো রিয়ালের শিরোপার অপেক্ষা। তা হয়নি। ফলে ম্যাচ শেষে শিরোপা উল্লাসে মাতে স্পেনের রাজধানীর ক্লাবটি।

আপনার মতামত লিখুন :