জিলহজ মাস শুরু ২৩ জুলাই, কুরবানি ১ আগস্ট

0
39

মর্যাদাপূর্ণ মাস জিলহজ। মুমিন মুসলমানের নেয়ামত লাভের মাস জিলহজ। আল্লাহ তাআলার অনেক নির্দেশনা পালনের মাসও এটি। মর্যাদাপূর্ণ এ মাসটি ২২ জুলাই সূর্যাস্তের পর সন্ধ্যা থেকে শুরু হবে।

২১ জুলাই মোতাবেক ২৯ জিলকদ বাংলাদেশের আকাশে পবিত্র জিলহজ মাসের চাঁদ দেখা যায়নি। ২২ জুলাই ৩০ দিন পূর্ণ হবে জিলকদ মাস। সে হিসেবে ২৩ জুলাই থেকে জিলহজ মাস গণনা শুরু হবে। আগামী ১ আগস্ট মুসলমানদের প্রধান ধর্মীয় উৎসব ঈদুল আজহা ও কুরবানি অনুষ্ঠিত হবে।

তবে সৌদি আরবসহ মধ্যপ্রাচ্যের অনেক দেশে ২১ জুলাই থেকে জিলহজ মাস শুরু হয়েছে। চাঁদ দেখার উপর নির্ভর করে অনুষ্ঠিত হয় ইসলামের অন্যতম ইবাদত হজ। এবার সৌদি আরবের চাঁদ দেখার হিসেবে পবিত্র হজ অনুষ্ঠিত হবে ৩০ জুলাই। আর সে হিসেবে মধ্যপ্রাচ্যের অধিকাংশ দেশে ঈদুল আজহা ও কুরবানি অনুষ্ঠিত হবে ৩১ জুলাই।

উল্লেখ্য যে, প্রতিটি দেশের নিয়ম অনুযায়ী ৯ জিলহজ ফজর থেকে ১৩ আসর পর্যন্ত তাকবিরে তাশরিক পড়বেন মুমিন মুসলমান। ইংরেজি তারিখ গড়মিল হলেও আরবি ৯ জিলহজ ঠিক রেখে এ ইবাদতগুলো করতে হবে। আর তাহলো-

– ১ জিলহজ : যারা কুরবানি করবেন, তাদের নখ, চুল বা শরীরের চামড়া না কাটা। সম্ভব হলে প্রথম দিন থেকেই রোজা রাখা শুরু করা।

– ৯ জিলহজ : ফজর থেকে তাকবিরে তাশরিক শুরু করা।

– ৯ জিলহজ : আরাফার ময়দানে উপস্থিত হয়ে হজ পালন করা।

– ৯ জিলহজ : আরাফার দিনের রোজা রাখা।

– ১০ জিলহজ : পবিত্র ঈদুল আজহা আদায় ও কুরবানি করা।

– ১০ জিলহজ : কুরবানির গোশত দিয়ে খাবার খাওয়া।

– ১৩ জিলহজ : আসর নামাজ পর্যন্ত তাকবিরে তাশরিক পড়া।

আল্লাহ তাআলা মুসলিম উম্মাহকে জিলহজ মাসের আমলগুলো যথাযথ ভাবে আদায় করার তাওফিক দান করুন। আমিন।

আপনার মতামত লিখুন :