শেভেনিং স্কলারশিপ পেলেন বাংলাদেশের ১২ পেশাজীবী

0
38

যুক্তরাজ্যের শেভেনিং স্কলারশিপ লাভ করেছেন বাংলাদেশের ১২ পেশাজীবী। ২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষের জন্য এই স্কলারশিপ পেয়েছেন তারা। করোনা পরিস্থিতির মধ্যে তীব্র আকাঙ্ক্ষা, কঠোর পরিশ্রম এবং অধ্যবসায়ের কারণে তারা এ স্কলারশিপ অর্জন করেছেন। সম্প্রতি ফরেন অ্যান্ড কমনওয়েলথ অফিস (এফসিও) থেকে এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে এ তথ্য জানানো হয়।

যুক্তরাজ্যের শেভেনিং স্কলারশিপ একটি সম্মানজনক বৃত্তি কার্যক্রম। যুক্তরাজ্য সরকারের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বৃত্তি প্রোগ্রাম এটি। ১৯৮৩ সালে এই বৃত্তি কার্যক্রম শুরু হয়। এর আওতায় শেভেনিং স্কলারশিপ ও শেভেনিং ফেলোশিপ দেয়া হয়। যুক্তরাজ্যের দূতাবাস ও হাইকমিশন বৃত্তি নির্ধারণ করে।

স্কলারশিপ পাওয়া বাংলাদেশিরা হলেন, ঐশ্বরিয়া রহমান, ফাতেমা-তুজ-জোহরা, শোয়েব সালমান, উন্নয়ন যোগাযোগ পেশাজীবী মিথিলা হুর, একাডেমিক ও জনস্বাস্থ্য ক্ষেত্রে অনিন্দা নিশাত মৈত্রী, জাকিউল হাসান, কৃষি উদ্ধাবনে কাজী জাওয়াদ হোসাইন, ফারহানা নাজ, জুডিশিয়াল সার্ভিস থেকে রুবাইয়া আক্তার, ফাহমিদা কে নিতু, মুনজিরিন শহীদ এবং সুমাইয়া মিষ্টি।

পূর্ণ স্কলারশিপের আওতায় তারা যুক্তরাজ্যে এক বছর বসবাস এবং পড়াশোনা করতে পারবেন। এছাড়া তারা সেখানে নিজেদের একাডেমিক ও পেশাগত উভয় ক্ষেত্রে দক্ষতা উন্নয়নের সুযোগ পাবেন। পাশাপাশি ইতিবাচক সম্পর্ক ও নেটওয়ার্ক তৈরির সুযোগ পাবেন বলে বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে।

বিশ্বের অন্যতম সম্মানজনক শেভেনিং স্কলারশিপের জন্য প্রতি বছর প্রায় ৬০ হাজার জন আবেদন করেন। এটি বাংলাদেশ ও যুক্তরাজ্যের মধ্যে কূটনৈতিক সম্পর্কের ক্ষেত্রেও গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে। ২০২১-২২ শিক্ষাবর্ষের জন্য আগামী ৩ সেপ্টেম্বর থেকে আবেদন গ্রহণ শুরু হবে বলে প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে।

আপনার মতামত লিখুন :