এমসি কলেজের ধর্ষকদের ক্রসফায়ার দেয়া দরকার : হানিফ

0
47

আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব-উল আলম হানিফ বলেছেন, সিলেটের এমসি কলেজের ঘটনায় জড়িতদের অহেতুক বিচারের কাঠগড়ায় দাঁড় না করিয়ে সরাসরি ক্রসফায়ার দেয়া দরকার। যদিও আমরা ক্রসফায়ার ও নির্বিচারে হত্যার বিরুদ্ধে। তারপরও বলি, যারা এ ধরনের পাশবিক নির্যাতন করে তাদের পশুর সঙ্গে তুলনা করা ছাড়া উপায় নেই। মঙ্গলবার (২৯ সেপ্টেম্বর) রাজধানীর রমনায় ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউট মিলনায়তনে আইইবির আলোচনা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন।

হানিফ বলেন, বিএনপি নেতারা বলছেন, ‘সারাদেশে এখন দুঃসময়, দেশে এখন দুর্নীতি এবং নারী নির্যািতনের মহামারি চলছে’। দুর্নীতি বাংলাদেশে একেবারে বন্ধ হয়ে গেছে এ কথা আমি বলবো না। দুর্নীতি তো আপনারা হাওয়া ভবন খুলে শুরু করেছিলেন। রাষ্ট্রীয়ভাবে আপনারা দুর্নীতির দোকান খুলে, অফিস খুলে বসেছিলেন। তারেক রহমানকে কমিশন না দিয়ে সারাদেশে কোনো কাজ হতো না। আপনারা দুর্নীতিকে সমাজের এবং প্রশাসনের রন্ধ্রে রন্ধ্রে ঢুকিয়ে দিয়েছিলেন।

তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দুর্নীতির শিকড় একে একে উপড়ে ফেলছেন। বিএনপি দুর্নীতির আশ্রয়-প্রশ্রয় দিয়েছে বলে সে সময় বেশি চোখে পড়েনি। আমরা দুর্নীতির বিরুদ্ধে অভিযান চালাচ্ছি বলে বিএনপি নেতারা এখন কথা বলছেন। দুর্নীতির বিরুদ্ধে অভিযান চালানোতে বিএনপি বিরোধিতা করছে।

নারী নির্যাতন নিয়ে বিএনপির বক্তব্যের জবাবে হানিফ বলেন, সিলেটের এমসি কলেজে একটি ঘটনা ঘটেছে। এটা খুবই দুঃখজনক, লজ্জাজনক ও নিন্দাজনক ঘটনা। আমাদের এক বোনের ওপর পাশবিক নির্যাতন করেছে। তারা কোন দলের সেটার মধ্যে আমি যেতে চাই না। এটা নিয়ে অনেক বিভ্রান্তি আছে, কেউ বলছে বর্তমান ছাত্রলীগের কেউ বলছে ছাত্রদলের। সে যে দলেরই হোক না কেন, এ ঘটনা চরম দুঃখজনক, চরম নিন্দনীয়।

অনুষ্ঠানে আইইবির প্রেসিডেন্ট প্রকৌশলী মো. নুরুল হুদার সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক এবং আইইবির সাবেক প্রেসিডেন্ট প্রকৌশলী মো. আবদুস সবুর। এছাড়া অনুষ্ঠানে বক্তব্য দেন আইইবি’র ভাইস প্রেসিডেন্ট প্রকৌশলী নূরুজ্জামান, প্রকৌশলী খন্দকার মনজুর মোর্শেদ, প্রকৌশলী মোহাম্মদ হোসাইন, প্রকৌশলী এস এম মনজুরুল হক মঞ্জু প্রমুখ। আইইবি ঢাকা কেন্দ্রের সম্পাদক প্রকৌশলী কাজী খায়রুল বাশার অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন।

আপনার মতামত লিখুন :