লিবিয়ায় পেট্রোল ঢেলে অভিবাসী শ্রমিককে পুড়িয়ে হত্যা

0
41

লিবিয়ার রাজধানী ত্রিপোলিতে তিন ব্যক্তি একটি কারখানায় হামলা চালিয়ে এক নাইজেরিয়ান অভিবাসী শ্রমিকের গায়ে পেট্রোল ঢেলে হত্যা করেছে। লিবিয়ার স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় বিবৃতি দিয়ে উত্তর আফ্রিকার দেশটিতে অভিবাসীদের ওপর হামলার সবশেষ এই হামলার তথ্য জানালো। খবর মার্কিন সংবাদমাধ্যম সিএনএন এর।

ওই শ্রমিকের মৃত্যুকে ‘দেশটিতে অভিবাসী শ্রমিকদের ওপর কাণ্ডজ্ঞানহীন অপরাধ’ হিসেবে অভিহিত করেছে জাতিসংঘ। ত্রিপোলিভিত্তিক সরকারের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় বিবৃতিতে জানায়, অভিযুক্তরা সবাই লিবিয়ার নাগরিক। ওই ব্যক্তির ওপর হামলার ঘটনায় তাদের সবাই গ্রেফতার হয়েছে। তবে তার নাম জানানো হয়নি।

জাতিসংঘ স্বীকৃত ত্রিপোলিভিত্তিক সরকারের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, অভিযুক্ত ব্যক্তিরা কারখানায় হামলা চালায় এবং নাইজেরিয়ান ওই নাগরিকের গায়ে পেট্রোল ঢেলে আগুন দেয় বলে জানিয়েছেন প্রত্যক্ষদর্শীরা।

লিবিয়ার জাতিসংঘের অভিবাসন সংস্থার প্রধান ফেডেরিকো সোডা বলেন, ‘গতকাল তিন জন লোক ত্রিপোলিতে নাইজেরিয়ান অভিবাসী শ্রমিককে হত্যা করায় আমরা আতঙ্কিত হয়ে পড়েছি। এই যুবককে জীবিত পুড়িয়ে দেয়া হয়েছিল, দেশে অভিবাসীদের ওপর আরও একটি নৃশংস অপরাধ। দায়ীদের অবশ্যই সাজা দিতে হবে।’

অভিবাসী ও শরণার্থীদের জন্য প্রতিকূল পরিবেশের কারণে বারবার অভিযুক্ত হয়েছে যুদ্ধবিধ্বস্ত লিবিয়া। এদের অনেকে নিরাপদ আশ্রয়ের আশায় ভূমধ্যসাগর হয়ে ঝুঁকিপূর্ণ পথে লিবিয়া হয়ে ইউরোপে পাড়ি জমায়। তবে তাদের মধ্যে অনেককে আটক করে ফের লিবিয়ায় ফেরত পাঠায় ইউরোপের দেশগুলোর সরকারি কর্তৃপক্ষ।

গত মাসে অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল লিবিয়ায় অবৈধ হত্যাকাণ্ড, গুম, নির্যাতন ও ধর্ষণসহ অভিবাসীদের ওপর ‘অত্যাচারের ভয়ঙ্কর চক্র’ সম্পর্কিত একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে। লন্ডনভিত্তিক আন্তর্জাতিক এই মানবাধিকার সংস্থাটি বলছে যে, করোনাভাইরাস মহামারি এসব অপরাধ আরও বাড়িয়ে তুলেছে সেখানে।

আপনার মতামত লিখুন :