আমি ফেসবুক ব্যবহার করিনা : সারিকা সাবরিন

0
77
ইমরুল শাহেদ : ফেসবুকে আমার নামে যেসব আইডিগুলো দেখা যায় সেগুলোর সবই ফেইক। আপনারা যারা ফেসবুক ব্যবহার করেন তারা এসব আইডির বিরুদ্ধে রিপোর্ট করতে পারেন। প্রাসঙ্গিক আলোচনায় তিনি বলেন, ‘আমার ব্যাপারে উইকিপিডিয়ায় যেসব তথ্য সন্নিবেশিত হয়েছে তার বেশির ভাগই সঠিক নয়। আমি ক্যারিয়ার শুরু করেছি ২০০৬ সালে। কিন্তু উইকিপিডিয়ায় লেখা হয়েছে ২০০৮ সালে।’ এছাড়া উইকিডিয়ায় সারিকা সাবরিনের ব্যক্তিগত জীবন সম্পর্কে লেখা হয়েছে তিনি একজন ব্যবসায়ীকে বিয়ে করেছিলেন। সংসার বেশিদিন টেকেনি। তার একটি কন্যা সন্তান রয়েছে। সারিকা সাবরিন বলেন, সব মিলিয়ে তিনি পাঁচ বছর কাজ থেকে দূরে ছিলেন। অর্থাৎ ১৫ বছরের ক্যারিয়ারে তিনি কাজ করেছেন মাত্র এক দশক। এ সময়ে তিনি কতগুলো নাটক, বিজ্ঞাপনচিত্র, ধারাবাহিক বা ওয়েব সিরিজে কাজ করেছেন তার কোনো হিসাব নেই। তিনি হাসতে হাসতেই কথাটা বলেছেন। তবে এখন সারিকার মন-মানসিকতা ও দৃষ্টিভঙ্গিতে ব্যাপক পরিবর্তন এসেছে। তিনি বলেন, ‘এক সময় আমি অনেক ভালো ভালো ছবির অফার পেয়েছিলাম। তখন করা হয়নি। চলচ্চিত্রে অভিনয় করব এমন কোনো ইচ্ছাই আমার ছিল না। এখন আমার সেই মন-মানসিকতায় পরিবর্তন হয়েছে। সত্যি বলতে কি আমি কাজে ফিরে আসার পর কোনো ছবির অফার পাইনি। ভালো পরিচালক এবং ভালো ছবির অফার পেলে চলচ্চিত্রে অবশ্যই অভিনয় করব।’ তিনি বলেন, ‘শুনেছি এখন অনেক ভালো ছবি হচ্ছে। ভালো ভালো নির্মাতারাও ছবি নির্মাণে এগিয়ে এসেছেন। এখন চলচ্চিত্রে অভিনয় করা যেতে পারে।’ চট্টলাকন্যা সারিকা হতে চেয়েছিলেন পাইলট। কিন্তু বন্ধুদের উৎসাহে হয়ে যান মডেল ও অভিনেত্রী। তার ক্যারিয়ার শুরুর নাটক হলো একই বছর ক্যামেলিয়া ও রুমালি। এরপর তিনি ব্রান্ড অ্যাম্বেসেডর হিসেবেও কাজ করেছেন। সুঅভিনেত্রী হিসেবে পেয়েছেন বাংলাদেশ চলচ্চিত্র সাংবাদিক সমিতির (বাচসাস) পুরস্কারও ।
আপনার মতামত লিখুন :