তিন গোলের জয়ে লিভারপুলের নতুন রেকর্ড

0
94

ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে ঘরের মাঠ এনফিল্ডে শেষ কবে হেরেছে লিভারপুল?- এই প্রশ্নের উত্তর দিতে হয়তো মাথা চুলকাবেন দলের কোচ ইয়ুর্গেন ক্লপও। কেননা উত্তরটা খুঁজতে যে ফিরে যেতে হবে তিন মৌসুম আগে। গত তিন মৌসুমে ঘরের মাঠে কোনও লিগ ম্যাচ হারেনি অলরেডরা।

চলতি মৌসুমেও সেই ধারাবাহিকতা ধরে রেখেছে ক্লপের শিষ্যরা। এনফিল্ডে একের পর ম্যাচ অপরাজিত থেকেই শেষ করছেন ফিরমিনো-মানেরা।

সবশেষ লিস্টার সিটিকে ৩-০ গোলে হারিয়ে গড়েছে নতুন রেকর্ড। চোট জর্জরিত একাদশ নিয়েও ম্যাচ জিততে কোনও সমস্যা হয়নি গত মৌসুমে প্রায় ত্রিশ বছর পর লিগ জেতা দলটির।

প্রায় চার দশক আগে ১৯৮১ সালে ঘরের মাঠে টানা ৬৩ ম্যাচ অপরাজিত থাকার রেকর্ড গড়েছিল লিভারপুল। সেবার তাদের অপরাজেয় যাত্রাটা থেমেছিল লিস্টারের কাছে হেরে। আর এবার লিস্টারকে হারিয়েই ৬৪ ম্যাচ অপরাজিত থাকার নিজেদের রেকর্ড গড়ল দলটি।

রোববার রাতে লিস্টারের বিপক্ষে রেকর্ডগড়া ম্যাচটিতে দুই গোল এসেছে ডিয়েগো জোতা ও রবার্তো ফিরমিনোর কাছ থেকে। এর আগে আত্মঘাতী খাত থেকে উপহার হিসেবে আসে প্রথম গোল। যা ভেঙেছিল লিস্টারের গোলের তালা।

করোনাভাইরাস ও ইনজুরির কারণে দলের নিয়মিত সদস্যদের মধ্যে অধিনায়ক জর্ডান হেন্ডারসন, ট্রেন্ট অ্যালেকজ্যান্ডার-আর্নল্ড, মোহামেদ সালাহ ও জো গোমেজকে এ ম্যাচে পায়নি লিভারপুল। আগে থেকেই ছিলেন না ভার্জিল ফন ডাইক।

এর সঙ্গে আবার যোগ হয় লিস্টার গোলরক্ষক কাস্পার এস্মাইকেলের অতিমানবীয় পারফরম্যান্স। ম্যাচের প্রথম ১৫ মিনিটের মধ্যেই লিভারপুলের তিনটি জোরালো আক্রমণ রুখে দেন লিস্টার গোলরক্ষক।

তবে নিজ দলের খেলোয়াড়কে থামানোর সাধ্য ছিল না তার। কর্ণার থেকে আসা বল হেডে ক্লিয়ার করতে গিয়ে উল্টো নিজেদের জালে জড়ান লিস্টার খেলোয়াড় জনি ইভানস। একের পর এক আক্রমণেও গোল না পাওয়া লিভারপুলের জন্য এটি ছিল বড় উপহার।

পরে প্রথমার্ধ শেষের মিনিট চারেক আগে গোল করেন জোতা এবং দ্বিতীয়ার্ধের চার মিনিট বাকি থাকতে স্কোরশিটে নাম তোলেন ফিরমিনো। দুজনের গোলই ছিল হেড থেকে। রবার্টসনের ক্রসে মাথা ছোঁয়ান জোতা, ফিরমিনো হেড করেন মিলনারের কর্ণারে।

এই জয়ের সুবাদে পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষস্থানের খুব কাছে পৌঁছে গেছে লিভারপুল। বর্তমানে নয় ম্যাচে ছয় জয় ও দুই ড্রয়ে লিভারপুলের পয়েন্ট ২০। সমান পয়েন্ট নিয়ে গোল ব্যবধানে এগিয়ে থাকায় শীর্ষে টটেনহ্যাম হটস্পার। এছাড়া সমান ১৮ পয়েন্ট নিয়ে চেলসি তিনে ও লেস্টার চারে আছে।

আপনার মতামত লিখুন :