হাতিরঝিলের আদলে নারায়ণগঞ্জে হচ্ছে লেক, ৫০ ভাগ কাজ শেষ

0
157

প্রাচ্যের ড্যান্ডি খ্যাত নারায়ণগঞ্জ জেলা শিল্প নগরী হিসেবে বেশ পরিচিত। রাজধানীর পার্শ্ববর্তী এই জেলাটিতে তুলনামূলকভাবে শিল্প প্রতিষ্ঠানের সংখ্যা বেশি। এর মধ্যে অন্যতম হলো সিদ্ধিরগঞ্জের আদমজী ইপিজেড। বাংলাদেশ রফতানি প্রক্রিয়াকরণ এলাকা কর্তৃপক্ষের (বেপজা) তথ্য অনুযায়ী, ইপিজেডে ৬২ হাজার ২০০ শ্রমিক কাজ করেন। যার কারণে বিভিন্ন অঞ্চলের মানুষ জীবিকার তাগিদে এসব শিল্প প্রতিষ্ঠানগুলোতে কাজ করতে সিদ্ধিরগঞ্জে বসবাস করছেন।

এসব শিল্পপ্রতিষ্ঠানের জন্য সিদ্ধিরগঞ্জে গড়ে উঠেছে ঘনবসতি। এজন্য নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের আওতাভুক্ত সিদ্ধিরগঞ্জ অপরিকল্পিত একটি এলাকায় পরিণত হয়েছে। ঘনবসতিপূর্ণ এলাকা হওয়ায় সময়ের পরিক্রমায় সৌন্দর্য হারিয়েছে সিদ্ধিরগঞ্জ। আর এই এলাকার সৌন্দর্যবর্ধনে কাজ করছে নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশন।

নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশন জানিয়েছে , রাজধানীর হাতিরঝিলের আদলে সিদ্ধিরগঞ্জের ডিএনডি লেক নির্মাণ করা হচ্ছে। লেকের সৌন্দর্যবর্ধনে তৈরি করা হচ্ছে দৃষ্টিনন্দন ছয়টি ব্রিজ। এর সঙ্গে থাকবে মঞ্চ। ব্রিজের পাশাপাশি নির্মাণ করা হবে ওয়াকওয়ে।

প্রকল্পটি বাস্তবায়ন করতে দুই ভাগে প্রায় শতকোটি টাকা ব্যয় করছে নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশন। নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের ৮নং ওয়ার্ডের ভাঙ্গারপুল থেকে শিমরাইলের গলাকাটা ব্রিজ পর্যন্ত ডিএনডির মূল খাল পুনঃখনন এবং খালের পশ্চিম পাশে ওয়াকওয়ে নির্মাণ করা হচ্ছে। জাইকার অর্থায়নে নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের তত্ত্বাবধানে ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান মেসার্স উদয়ন বিল্ডার্স প্রকল্পটি বাস্তবায়ন করছে।

২০১৯ সালের ১১ ফেব্রুয়ারি ও ৩ মে দুই ধাপে নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের মেয়র ডা. সেলিনা হায়াৎ আইভী প্রকল্পটির কাজের উদ্বোধন করেন। শুরুতে প্রকল্পটি শেষ করতে ১৫ মাস সময় নির্ধারণ করা হয়। ২০২০ সালের ডিসেম্বর কাজ শেষ হওয়ার কথা থাকলেও মহামারি করোনার প্রভাবে সেই সময় বাড়ানো হয়েছে। করোনার প্রভাবে তিন মাস কাজ বন্ধ থাকার পর নব উদ্যোমে আবারও কাজ শুরু হয়েছে। সিটি গভর্নেন্স প্রজেক্টের (সিজিপি) আওতায় সিটি কর্পোরেশনের ৩নং ওয়ার্ডের গলাকাটা পুল থেকে ৮নং ওয়ার্ডের ভাঙ্গারপুল পর্যন্ত সাড়ে ৫ কিলোমিটার ডিএনডি খালের সৌন্দর্যবর্ধনে ৬৩ কোটি ৪৮ লাখ এবং খালের ওপর ছয়টি ব্রিজ নির্মাণে ৩৫ কোটি ৮৪ লাখ টাকা ব্যয় নির্ধারণ করা হয়েছে।

যার মধ্যে ঢাকার হাতিরঝিলের আদলে তিনটি লোডেড এবং তিনটি ফুটওভার ব্রিজ নির্মাণ করা হবে। প্রকল্পটি বাস্তবায়ন হলে ডিএনডির এই লেকটি সিদ্ধিরগঞ্জের অন্যতম বিনোদন কেন্দ্র হিসেবে গড়ে উঠবে বলে অভিমত প্রকল্প সংশ্লিষ্টদের।

স্থানীয় বাসিন্দা রাশেদুল ইসলাম রাজু বলেন, এ প্রকল্পটি হাতে নেয়ায় আমরা অনেক খুশি। প্রকল্পটি বাস্তবায়ন হলে আমাদের জন্য একটি বিনোদন কেন্দ্র হবে ডিএনডি লেক। এ বিষয়ে নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের নির্বাহী প্রকৌশলী আজগর হোসেন জানান, এখন পর্যন্ত ৫০ ভাগ কাজ শেষ হয়েছে। মহামারি করোনার প্রভাবে তিন মাস কাজ বন্ধ ছিল। আগামী ছয় মাসের মধ্যে প্রকল্পের কাজ শেষ হবে।

আপনার মতামত লিখুন :