বিভিন্ন কর্মসূচির মধ্য দিয়ে টিআইবির আন্তর্জাতিক দুর্নীতিবিরোধী দিবস উদযাপন

0
44

জাতীয় ও স্থানীয় পর্যায়ে দুর্নীতিবিরোধী বিভিন্ন কর্মসূচির মধ্য দিয়ে প্রতি বছরের মতো এবারও ৯ ডিসেম্বর জাতিসংঘ ঘোষিত আন্তর্জাতিক দুর্নীতিবিরোধী দিবস উদযাপন করেছে ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশ (টিআইবি)। এবারের প্রতিপাদ্য ছিল ‘করোনাভাইরাস মোকাবিলায় দুর্নীতির প্রতি শূন্য সহনশীলতা: দুর্নীতি থামাও, জীবন বাঁচাও’।

জাতীয় কর্মসূচির অংশ হিসেবে এদিন সকালে অনলাইনে ‘দুর্নীতিবিরোধী সামাজিক আন্দোলনে তারুণ্য: কার্টুন ও চিত্রশিল্প’ শীর্ষক এক আলোচনা এবং ১৫তম দুর্নীতিবিরোধী কার্টুন প্রতিযোগিতার পুরস্কার ঘোষণা এবং অনলাইন প্রদর্শনীর উদ্বোধন করা হয়।

টিআইবির বোর্ড অব ট্রাস্টিজের চেয়ারপারসন ও শিক্ষাবিদ অধ্যাপক ড. পারভীন হাসানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন টিআইবির নির্বাহী পরিচালক ড. ইফতেখারুজ্জামান। এ সময় আলোচনায় অংশ নেন টিআইবির ন্যায়পাল ও কথাসাহিত্যিক অধ্যাপক সৈয়দ মনজুরুল ইসলাম, সংস্থাটির বোর্ড অব ট্রাস্টিজের সদস্য এবং লেখক ও সাংবাদিক আবুল মোমেন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলা অনুষদের অঙ্কন ও চিত্রায়ন বিভাগের অধ্যাপক এবং কার্টুনিস্ট শিশির ভট্টাচার্য ও দ্য বিজনেস স্ট্যান্ডার্ড পত্রিকার নির্বাহী সম্পাদক শাহরিয়ার খান।

স্বাগত বক্তব্যে ড. ইফতেখারুজ্জামান বলেন, ‘আজ আন্তর্জাতিক দুর্নীতিবিরোধী দিবস হলেও টিআইবির জন্য প্রতিটি দিনই দুর্নীতিবিরোধী দিবস। তরুণ স্বেচ্ছাসেবীদের নিয়ে যেসব মাধ্যম ব্যবহার করে টিআইবি দুর্নীতিবিরোধী সামাজিক আন্দোলন করে যাচ্ছে তার মধ্যে সাংস্কৃতিক মাধ্যম অন্যতম। কবিতা, গান, গল্প, নাটিকা, সংস্কৃতি মেলার পাশাপাশি ২০০৬ সাল থেকে কার্টুন প্রতিযোগিতা এই মাধ্যমের প্রধানতম অনুষঙ্গ, যা আন্তর্জাতিকভাবেও স্বীকৃতি পেয়েছে। এবারের প্রতিযোগিতায় অংশ নেয়া তরুণ সব কার্টুনিস্টকে অভিনন্দন।’

অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন টিআইবির আউটরিচ অ্যান্ড কমিউনিকেশন বিভাগের পরিচালক শেখ মনজুর-ই-আলম। অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন টিআইবির উপদেষ্টা- নির্বাহী ব্যবস্থাপক অধ্যাপক ড. সুমাইয়া খায়ের, বিভিন্ন গণমাধ্যমের প্রতিনিধি এবং কার্টুন প্রতিযোগিতার কার্টুনিস্টরা।

অনুষ্ঠানের এক পর্যায়ে টিআইবির ১৫তম দুর্নীতিবিরোধী কার্টুন প্রতিযোগিতা ২০২০-এর পুরস্কার ঘোষণা করা হয়।

‘করোনাভাইরাস মোকাবিলায় দুর্নীতি’ বিষয়ে আয়োজিত এ কার্টুন প্রতিযোগিতায় ‘ক’ বিভাগে (১৩-১৮ বছর) ১ম, ২য় ও ৩য় স্থান অধিকার করেছেন যথাক্রমে কুমিল্লা ক্যাডেট কলেজের শিক্ষার্থী মো. ইসমাঈল মাহমুদ, নোয়াখালী সরকারি কলেজের শিক্ষার্থী আসিফ মোহাম্মদ ইউছুফ এবং বাংলাদেশ ইন্টারন্যাশনাল স্কুল অ্যান্ড কলেজের (বিআইএসটি) শিক্ষার্থী তাসনিম সামিহা ইসলাম। ‘খ’ বিভাগে (১৯-২৫ বছর) ১ম, ২য় ও ৩য় স্থান অধিকার করেন যথাক্রমে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী মাহাতাব রশীদ, জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের দুরন্ত সাদাত মাহবুব এবং ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের রাহুল রাজ দেবনাথ।

উভয় গ্রুপের বিজয়ী তিনজনকে যথাক্রমে ৭৫ হাজার, ৫০ হাজার ও ৪০ হাজার টাকার চেক, ক্রেস্ট এবং সনদ দেয়া হয়। এছাড়া দুটি বিভাগ থেকে মোট ৪২ জন কার্টুনিস্টকে বিশেষ মনোনয়ন দেয়া হয়।

উল্লেখ্য, এ বছর দুটি বিভাগে ১৩০ জন কার্টুনিস্টের আঁকা মোট ২৮৭টি কার্টুন জমা পড়ে। প্রতিযোগিতার বিজয়ী ও বিশেষ মনোনয়নপ্রাপ্ত ৪৮ কার্টুনিস্টের মোট ৮০টি কার্টুন নিয়ে আজ থেকে অনলাইনে বিশেষ প্রদর্শনী চলবে। প্রদর্শনী দেখা যাবে এই লিংকে ক্লিক করে।

আপনার মতামত লিখুন :