পিডিপির নিবন্ধন বাতিল, প্রজ্ঞাপন জারি

0
84

প্রগতিশীল গণতান্ত্রিক দলের (পিডিপি) নিবন্ধন বাতিল করে প্রজ্ঞাপন জারি করেছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। সাংবিধানিক প্রতিষ্ঠানটির ওয়েবসাইট থেকেও দলটির নাম, প্রতীকসহ সব ধরনের তথ্য মুছে ফেলা হয়েছে।

ইসি সূত্র জানায়, সোমবার (১৪ ডিসেম্বর) দলটির নিবন্ধন বাতিল করে প্রজ্ঞাপন জারি করেছে কমিশন। এর আগে ২৯ নভেম্বর ৭৩তম কমিশন সভায় পিডিপির নিবন্ধন বাতিলের সিদ্ধান্ত সর্বসম্মতিক্রমে গ্রহণ করে ইসি। ২০০৮ সালের ১৩ নভেম্বর দলটিকে নিবন্ধন দিয়েছিল সাংবিধানিক প্রতিষ্ঠানটি। তাদের দলের প্রতীক ছিল বাঘ। দলটির মহাসচিব প্রিন্সিপাল এম এ হোসেন। রাজধানীর সেগুনবাগিচার তোপখানা রোডে দলটির কেন্দ্রীয় কার্যালয়।

প্রজ্ঞাপনে ইসি বলেছে, আইনের বিধান অনুযায়ী প্রগতিশীল গণতান্ত্রিক দলের সক্রিয় কেন্দ্রীয় দফতর, এক তৃতীয়াংশ জেলা দফতর ও একশটি উপজেলা/থানা কার্যালয় দফতরের ঠিকানা এবং কমিটির তালিকা পাঠানোর জন্য পত্র দেয়া হয়। পত্রের পরিপ্রেক্ষিতে পিডিপির পক্ষ থেকে ২ মাস সময় বৃদ্ধির আবেদন করা হলে কমিশন এ সময় বৃদ্ধি করে। সে মতে আংশিক জেলা ও উপজেলা দফতরের ঠিকানা এবং কমিটির তালিকা জমা প্রদান করে তারা। দাখিল করা তথ্যাদি অসম্পূর্ণ বিধায় পূর্ণাঙ্গ তথ্য প্রেরণের জন্য পুনরায় পত্র দেয়া হয়। তার পরিপ্রেক্ষিতে পূর্ণাঙ্গ তথ্য প্রেরণের জন্য পুনরায় ২ মাস সময় বৃদ্ধির আবেদন করেন। ওই আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে কমিশন পুনরায় ২ মাস সময় বাড়ায়।

সময় বৃদ্ধির পর পিডিপির দাখিল করা কাগজপত্রাদি মাঠ পর্যায়ের যাচাই করে সক্রিয় কেন্দ্রীয় দফতর এবং জেলা ও উপজেলা দফতরের কার্যকারিতা ও অস্তিত্ব পাওয়া যায়নি। ফলে রাজনৈতিক দল নিবন্ধন বিধিমালা ২০০৮ (২০১২ পর্যন্ত সংশোধিত) এর বিধি ৯ এবং দ্য রিপ্রেজেন্টেশন অব দ্য পিপল অর্ডার, ১৯৭২ এর অনুচ্ছেদ ৯০বি (১) (এ)(iii) এর শর্তাদি প্রতিপালনে ব্যর্থ হওয়ায় কমিশন দলটির নিবন্ধন বাতিলের সিদ্ধান্ত গ্রহণ করে।

আপনার মতামত লিখুন :