তৈলাক্ত ত্বকের মেকআপ ঠিক রাখবেন যেভাবে

0
107

মুখ তৈলাক্ত বলে মেকআপ ঠিকমতো বসেই না। আবার কোনোরকমে যদি মেকআপ করা হয়ও, গলতে সময় নেয় না মোটেই। পার্টিতে, দাওয়াতে সবাই কেমন সেজেগুঁজে ঘুরে বেড়াচ্ছে আর আপনি গলে যাওয়া মেকআপ নিয়ে পড়েছেন মুশকিলে।

এমন মুশকিল থেকে উদ্ধার পেতে পারেন সহজেই। না, সেজন্য মেকআপ নেয়া বন্ধ করতে হবে না। শুধু মেকআপ করার সময় খেয়াল রাখতে হবে কিছু বিষয়ের দিকে। তারপর সারাদিনের জন্য আপনি তৈরি।

মেকআপ শুরু করার আগে মুখ ভালো করে ধুয়ে নেয়া জরুরি। হালকা গরম পানিতে মুখ ধুয়ে নিন, এতে আপনার ত্বকের তেল, ময়লা তাড়াতাড়ি যায়। তারপর ভেজা মুখেই আপনার পছন্দের ক্লিনজার দিয়ে ভালো করে ধুয়ে নিন।

Makeup-2

এরপর তোয়ালে দিয়ে ভালো করে মুখ মুছে টোনার লাগান। আপনার অয়েলি ত্বকের এক্সট্রা ময়লা, তেলকে পরিষ্কার করতে কিন্তু টোনারের জুড়ি নেই। অয়েল ফ্রি যেকোনো টোনারে তুলো ভিজিয়ে মুখে ভালো করে লাগান। এবার শুকোতে দিন। এবার অয়েল ফ্রি হালকা কোনো ময়েশ্চারাইজার ব্যবহার করুন যা আপনাকে ম্যাট লুক দেবে। হালকা করে লাগান।

এবার ম্যাট ফিনিশড কোনো প্রাইমার লাগান। প্রাইমার আপনার মুখকে একটা স্মুদ, শাইন ফ্রি বেস দেবে, যাতে মেকআপ দারুণ খুলবে। আর মেকআপ গলার সম্ভাবনাও কমবে। তবে আপনার ত্বক যেহেতু তৈলাক্ত, তাই অয়েল ফ্রি, ম্যাটিফাইং এফেক্ট দেবে, এমন প্রাইমার ব্যবহার করুন।

তৈলাক্ত ত্বক মানেই দাগ-ছোপ থাকবে। তাই মেকআপের আগে সেসব দাগ-ছোপ লুকিয়ে ফেলা দরকার। ম্যাট কনসিলার হালকা করে লাগান। আপনার সব ব্রণের দাগ আর ডার্ক সার্কেল- সবই ভ্যানিশ হয়ে যাবে এক নিমেষে।

makeup-3

ত্বকের বাড়তি তেলকে যদি দূর করতে চান, তাহলে ফাউন্ডেশন আপনার বেস্ট ফ্রেন্ড হতে পারে। তবে ফাউন্ডেশন কেনার আগে অয়েল ফ্রি কিনা দেখে নেবেন। এটা আপনাকে ম্যাটিফাইং এফেক্ট দেবে।

এবার ফিনিশিং টাচে লাগিয়ে ফেলুন আপনার প্রিয় ম্যাট ট্রান্সলুসেন্ট পাওডার। কাবুকি ব্রাশ বা পাউডার ব্রাশ দিয়ে আস্তে করে পাউডার মিলিয়ে দিন। মুখের ভেতর থেকে বাইরে ব্রাশ দিয়ে এনে গোল গোল করে ঘুরিয়ে লাগান।

এবার পালা আপনার মেকআপের ফিনিশিং টাচের। মুখকে যদি রেডিয়ান্ট গ্লো দিতে চান, তাহলে পাউডার ব্লাশ লাগান। আইলাইনার, কাজল, মাস্কারা লাগিয়ে চোখের মেকআপ কমপ্লিট করুন। ঠোঁটে লিপস্টিক লাগান। তাহলেই রেডি আপনার তৈলাক্ত ত্বকের মেকআপ। তবে হ্যাঁ, ওয়াটারপ্রুফ মেকআপ ব্যবহার করবেন।

আপনার মতামত লিখুন :