করোনা সংক্রমণ: ৯২টি লোকাল ট্রেন এখনো বন্ধ

0
130

করোনা সংক্রমণ কিছুটা নিম্নগামী। সড়ক পরিবহনের ক্ষেত্রে এখন আর তেমন বিধিনিষেধ নেই। নৌপথেও স্বাভাবিকভাবেই যাত্রী পরিবহন করা হচ্ছে। কিন্তু সরকারের সংস্থা রেলে এখনো স্বাভাবিক চলাচল শুরু হয়নি। সারা দেশে এখনো ৯২টি মেইল, লোকাল ও কমিউটার ট্রেন চালু হয়নি। রেলে এসব ট্রেন ‘গরিবের’ বাহন হিসেবে পরিচিত। এই ট্রেনগুলো শিগগিরই চালু হওয়ার কোনো সম্ভাবনাও নেই।

করোনা সংক্রমণের কারণে প্রায় দুই মাস যাত্রীবাহী ট্রেন চলাচল বন্ধ থাকা, পরে অর্ধেক আসন ফাঁকা রেখে ট্রেন পরিচালনা এবং লোকালসহ কিছু ট্রেন চালু না করার প্রভাব পড়েছে আয়ে। গত পাঁচ মাসে ক্রমাগত লোকসান গুনতে থাকা সরকারের সংস্থা রেলের আয় কমেছে ৫২ শতাংশ। যাত্রী কমে গেছে ৬২ শতাংশ। করোনা সংক্রমণ পরিস্থিতির আগে ময়মনসিংহ-ভৈরব পথে চারটি লোকাল ট্রেন চলাচল করত। মার্চে বন্ধ হওয়ার পর সেগুলো আর চালু হয়নি। স্বাধীনতার পরপরই ঈশা খাঁ এক্সপ্রেস নামে দুটি মেইল ট্রেন ঢাকা থেকে ময়মনসিংহের পথে চলাচল করত। করোনা সংক্রমণের আগে হঠাৎ করে সেগুলোও বন্ধ করে দেওয়া হয়। ফলে এই পথে এখন আর কোনো লোকাল বা মেইল ট্রেন চলছে না। অথচ ময়মনসিংহ ও কিশোরগঞ্জ জেলার ২২টি স্টেশনের মাধ্যমে এসব লোকাল ও মেইল ট্রেনে যাতায়াত করত লাখো মানুষ। কমবেশি একই অবস্থা ময়মনসিংহ-জামালপুর, ভৈরব-আখাউড়া, চট্টগ্রাম-চাঁদপুরসহ আরও কিছু পথে।

আপনার মতামত লিখুন :