১ হাজার টাকায় মিস ইউনিভার্স বাংলাদেশের টিকিট

0
84

এক হাজার টাকায় মিলবে মিস ইউনিভার্স বাংলাদেশ হওয়ার টিকিট। দেশের আগ্রহী তরুণীরা এই টাকায় নাম নিবন্ধন করে সেরার দৌড়ে অংশ নিতে পারবেন। মিস ইউনিভার্স বাংলাদেশ আয়োজনের সংবাদ সম্মেলন শেষে এমনটাই জানা গেছে।
আগামী ১৩ জানুয়ারি থেকে শুরু হচ্ছে মিস ইউনিভার্স বাংলাদেশ প্রতিযোগিতার নাম নিবন্ধন। ২৫ জানুয়ারির মধ্যে বাংলাদেশের আগ্রহী তরুণীরা নাম নিবন্ধন করতে পারবেন। ঢাকার একটি পাঁচতারা হোটেলে আজ সোমবার সকালে সংবাদ সম্মেলন করে আয়োজন সম্পর্কে বিস্তারিত জানানো হয়।

আয়োজন নিয়ে কথা হয় মিস ইউনিভার্স বাংলাদেশের পরিচালক শফিকুল ইসলামের। তিনি জানালেন, পৃথিবীর অনেক দেশের সুন্দরী প্রতিযোগিতার একটা ন্যূনতম ফি থাকে। সেই ভাবনা থেকে এবার নিবন্ধন ফি ধার্য করা হয়েছে। তিনি বললেন, ‘প্রথমবারের আয়োজনে আমরা দেখেছি, ১২ হাজারের বেশি প্রতিযোগী আবেদন করেন। এর মধ্যে পাঁচ হাজারের বেশি করেছিলেন একদম খেলাচ্ছলে, যাঁদের পরবর্তী সময়ে আমরা ডেকেও পাইনি। এতে সময়ের অপচয় যেমন, তেমনি অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হতে হয়। এত এত প্রতিযোগী বাছাইয়ের জন্য বেশ কয়েকজন বিচারকের দরকার হয়। বিচারকদের যাচাই–বাছাই শেষে অনেককে খুঁজে পাওয়া যায় না। এভাবে সময় নষ্ট করার কোনো মানেই হয় না। তাই আমরা সবাই মিলে সিদ্ধান্ত নিয়েছি, মিনিমাম অবদান যেন প্রতিযোগীদেরও থাকে, তাহলে সত্যিকারের আগ্রহীরাই আবেদন করবেন। এতে প্রক্রিয়াটা আমাদের জন্যও সহজ হয়।’

মিস ইউনিভার্স বাংলাদেশ ওয়েবসাইট এর মাধ্যমে ১৩ জানুয়ারি থেকে আবেদন নেওয়া শুরু হবে। ২৫ জানুয়ারি পর্যন্ত আবেদন চলবে। নিবন্ধনপ্রক্রিয়া এবং প্রতিযোগিতা সম্পর্কে বিস্তারিত জানা যাবে মিস ইউনিভার্স বাংলাদেশের অফিশিয়াল ফেসবুক পেজ থেকে এবং ওয়েব সাইট ও ফেসবুক থেকে পর্যায়ক্রমে অডিশনের মাধ্যমে বাছাই ও গ্রুমিং শেষে মিস ইউনিভার্স বাংলাদেশের গ্র্যান্ড ফিনালে অনুষ্ঠিত হবে।

আয়োজক কর্তৃপক্ষ জানায়, আগামী মার্চ মাসে মিস ইউনিভার্স বাংলাদেশের গ্র্যান্ড ফিনালে অনুষ্ঠিত হবে। কোভিড-১৯ পরিস্থিতি ঠিকঠাক থাকলে বাংলাদেশ পর্বের বিজয়ী আগামী মে মাসে অংশ নেবেন যুক্তরাষ্ট্রের মূল আয়োজনে। এই আয়োজনের প্রথম আসরে সাবেক মিস ইউনিভার্স সুস্মিতা সেন উপস্থিত ছিলেন। এবারের আয়োজনে এরই মধ্যে দুজন সাবেক মিস ইউনিভার্সের সঙ্গে কথা হয়েছে। একজন লারা দত্ত ও অন্যজন ক্যাটরিনা গ্রে। দুই দেশের কোভিড-১৯ পরিস্থিতি সাপেক্ষে একজন ঢাকায় উপস্থিত থাকবেন।মিস ইউনিভার্স বাংলাদেশ প্রতিযোগিতার এবারের আয়োজনের মূল স্লোগান ‘আমার আত্মবিশ্বাস, আমার সৌন্দর্য’। আয়োজনের সভাপতি রফিকুল ইসলাম বলেন, ‘বাংলাদেশের অন্যতম বুদ্ধিমতী, মেধাবী ও আত্মবিশ্বাসী তরুণীদের বিশ্বদরবারে তুলে ধরবে মিস ইউনিভার্স বাংলাদেশ। বাংলাদেশের নারীদের জন্য এটি এমন একটি প্ল্যাটফর্ম, যেখানে তাঁরা তাঁদের চলার পথে নানা চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় নানামুখী সামাজিক কার্যক্রমের মাধ্যমে মানবতার সেবায় এগিয়ে আসবেন।

বর্তমানে নারী নির্যাতন আমাদের সমাজের অন্যতম গুরুতর সমস্যা। এই পদক্ষেপের মাধ্যমে নারী নির্যাতনের বিরুদ্ধে দেশব্যাপী জনসচেতনতা সৃষ্টির লক্ষ্যে বিভিন্ন পদক্ষেপ নেওয়া সম্ভব হবে। এটি আমাদের জন্য অত্যন্ত গর্বের একটি বিষয়, এর মাধ্যমে বাংলাদেশের একজন প্রতিনিধি মিস ইউনিভার্স প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণের মাধ্যমে বাংলাদেশকে আন্তর্জাতিক অঙ্গনে তুলে ধরবেন। প্রমাণ করবেন বাংলাদেশের নারীরা ও বিশ্বের যেকোনো দেশের নারীদের মতোই আত্মবিশ্বাসী।

’সংবাদ সম্মেলনে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন পৃষ্ঠপোষক প্রতিষ্ঠান আরটিভির প্রধান নির্বাহী সৈয়দ আশিক রহমান, অ্যাডকমের ব্যবস্থাপনা পরিচালক নাজিম ফারহান চৌধুরী, মিস ইউনিভার্স বাংলাদেশ ২০১৯ শিরিন শীলা প্রমুখ।

আপনার মতামত লিখুন :