আজমেরী ওসমানের পক্ষ থেকে খাদ্য ও শীতবস্ত্র বিতরণ

0
158

হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালী জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের অসমাপ্ত আত্মজীবনীর সমাপ্তি ঘোষণা বাস্তবায়নে এবং স্বনির্ভর একটি ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ে তোলার জন্য কাজ করে যাচ্ছেন বঙ্গবন্ধুর কন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা। বাঙালী জাতিকে মহা জাতিতে রুপান্তরিত করতে হলে সমাজের প্রতিটি মানুষের স্ব স্ব অবস্থান থেকে পরিবর্তনের অঙ্গীকার নিয়ে এগিয়ে যেতে হবে সকলের আর দুর করতে হবে শ্রেণীবৈষম্যতা। জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের বানী অনুশীলনের মাধ্যমেই কাঙ্ক্ষিত সেই স্বাধীনতা অর্জন করা সম্ভব। লুকিয়ে আছে প্রতিটি মানুষের হৃদয়ে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সেই বানী- বঙ্গবন্ধু বলেছিলেন “এই স্বাধীনতা তখনি আমার কাছে পূর্ণ স্বাধীনতা হয়ে উঠবে, যেদিন বাংলার কৃষক মজুর ও দুঃখী মানুষের সকল দুঃখের অবসান ঘটবে” আজও সেই বানী নীতিকথায় বইয়ের পাতায় আবদ্ধ হয়ে আছে আমরা সে স্বাধীনতার মুক্তি চাই, স্বপ্নের সোনার বাংলা বাস্তবায়নের লক্ষে কাজ করেছেন বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব নাসিম ওসমান। তারই ধারাবাহিকতায় কাজ করে যাচ্ছেন বঙ্গবন্ধুর আদর্শে বিশ্বাসী নারায়ণগঞ্জ জেলার আগামীর পথপ্রদর্শক জননেতা আলহাজ্ব আজমেরী ওসমান।

বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব নাসিম ওসমান স্মৃতি দুস্থ্য ও জনকল্যাণ ফাউন্ডেশন এর সহযোগিতায় এতিম অনাথ ও অসহায় পথশিশুদের খাদ্য ও শিক্ষা ব্যবস্থা নিশ্চিত করতে নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছেন। ক্ষুধা ও দারিদ্র্য মুক্ত ডিজিটাল বাংলাদেশ ঘোষণায় ঐতিহাসিক নারায়ণগঞ্জ জেলাকে রাষ্ট্রের মডেল জেলা হিসেবে গড়ে তোলার জন্য প্রতিদিন নগরীর বিভিন্ন যায়গায় অসহায় দারিদ্র শিশুদের মাঝে খাদ্য, শিক্ষা ও বস্ত্র বিতরণ করা হয়, বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব নাসিম ওসমান স্মৃতি দুস্থ্য ও জনকল্যাণ ফাউন্ডেশনের সভাপতি তরিকুল ইসলাম লিমন এক সাক্ষাৎকারে সাংবাদিকদের বলেন জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বপ্নের সোনার বাংলা বাস্তবায়নে এবং জননেত্রী শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করার লক্ষে আজমেরী ওসমানের পক্ষ থেকে জনকল্যাণ মূলক সব কার্যক্রমগুলো অব্যাহত থাকবে ইনশাআল্লাহ।

স্বপ্নছোঁয়া পাঠশালার পরিচালক মোঃ হাইউল ইসলাম প্রধান হাবিব বলেন- বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব নাসিম ওসমানের উত্তরাধিকারী জননেতা আলহাজ্ব আজমেরী ওসমানের মতো করে এই সমাজের সকল জনপ্রতিনিধির উচিৎ বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন বাস্তবায়নের লক্ষে কাজ করে যাওয়া তবেই বঙ্গবন্ধুর অসমাপ্ত আত্মজীবনীর সমাপ্তি ঘটবে।

আপনার মতামত লিখুন :