না’গঞ্জে শুক্কুর মাহমুদ’র ১ম মৃত্যু বার্ষিকী উপলক্ষে স্মরণসভা ও মিলাদ মাহফিল

0
91

শ্রমিক লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সাবেক সভাপতি শুক্কুর মাহমুদ’র প্রথম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষ্যে স্বরণসভা ও মিলাদ মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে। বৃৃহস্পতিবার (২৮জানুয়ারী) নারায়ণগঞ্জ শহরের ২নং রেল গেইট আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে এ আয়োজন করা হয়।

জেলা ও মহানগর শ্রমিক লীগের উদ্যোগে আয়োজিত অনুষ্ঠানে, প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, জাতীয় শ্রমিক লীগ কেন্দ্রীয় কমিটির আইন ও দর কষাকষি বিষয়ক সম্পাদক কাজিম উদ্দিন প্রধান।
স্বরণসভায় কাজিম উদ্দিন প্রধান বলেন, শুক্কুর মাহমুদ আমাদের মাঝ থেকে এক বছর আগে চলে গেছেন। আমাদের প্রিয় নেতা সারা বাংলাদেশে অনেক কর্মী সৃষ্টি করেছেন। নারায়ণগঞ্জের মধ্যে তিনি যেসকল নেতৃবৃন্দ রেখে গিয়েছেন, আমি মনে করি যতদিন শ্রমিক লীগ বেঁচে থাকবে, ততদিন শুক্কুর মাহমুদকে স্মরণ করে যাবে। শুক্কুর মাহমুদ’র কোন লোভ ছিল না, কারো প্রতি কোনোরকম রাগও ছিল না। শ্রমিক কর্মচারীদের কল্যাণে তিনি কাজ করেছেন সবসময়। বর্তমানে নারায়ণগঞ্জের শ্রমিক লীগে কমিটি গঠন নিয়ে অনেক দৌড়াদৌড়ি করতে হচ্ছে। কিন্তু শুক্কুর মাহমুদ ভাই থাকলে তাকে বললেই কাজটি করে দিতেন।

আমি মনে করি, নারায়ণগঞ্জের শ্রমিকদের নিয়ে দেশের সবচেয়ে শক্তিশালী সংগঠন করে গেছেন প্রয়াত নেতা শুক্কুর মাহমুদ। আপনারা সবাই অন্তর থেকে তার জন্য দোয়া করবেন। মৃত্যুর সাধ সবাইকে গ্রহণ করতে হবে, কিন্তু কেউ আগে কেউ পরে। আজকে আমরা সবাই তার বাসভবনে একত্রিত হয়ে তার কবর জিয়ারত করেছি।

আমি কাজিম বলতে পারি আমাকে তিল তিল করে এই পর্যায়ে এনেছেন। শুক্কুর মাহমুদ আমাদের মাঝে নেই, এখন আমাদের আছেন গণমানুষের নেতা, আমাদের অভিভাবক, নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের সাংসদ আলহাজ্ব এ কে এম শামীম ওসমান ভাই। আজকে আমি আছি, কাল চলে যাবো, আপনারা আসবেন। এভাবেই আমাদের চলতে হবে। আপনে যদি আমাকে শ্রদ্ধা করেন, আপনাকে আমি মনে রাখবো ও ভালোবাসবো। আমরা প্রত্যেককেই সংগঠিত থাকবো।

জেলা শ্রমিক লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি কামাল হোসেন’র সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে জেলার সাধারণ সম্পাদক মাইনুদ্দিন আহমেদ বাবুল, মহানগর আলমগীর কবির বকুল, মহানগরের সাধারণ সম্পাদক কামরুল হাসান মুন্না সহ জেলা, মহানগর, থানা ও উপজেলা শ্রমিক লীগ এবং এর অঙ্গ সংগঠনের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

আপনার মতামত লিখুন :