কর্মক্ষেত্রে সফল হতে যেসব দক্ষতা জরুরি

0
161

কর্মক্ষেত্রে ভাবমূর্তি খুবই গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। বিশেষ করে তা যখন হয় বসদের কাছে। কর্মক্ষেত্রে সফল হতে এবং বসদের সন্তুষ্ট করতে কার্যকর দক্ষতা অর্জন করা জরুরি। এটি শুধু কাজের মানের ওপর নির্ভর করে না। অন্যান্য বিষয়ও এখানে কাজ করে, যা কর্মক্ষত্রে বসের কাছে একজনের অবস্থান নির্ধারণ করে দেয়। বসের কাছে নিজের উজ্জল ভাবমূর্তি তৈরি, অফিসে পদোন্নতির জন্য কিছু কৌশলের কথা তুলে ধরা হয়েছে।

সাবলীল পোশাক
পোশাকের বিষয়টি বসসহ সকলের কাছে ইতিবাচক ভাবমূর্তি তৈরির ক্ষেত্রে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। একটি পরিষ্কার শার্ট-প্যান্ট বা সাবলীল আনুষ্ঠানিক (ফরমাল) পোশাক হলো কর্মক্ষেত্রের জন্য উপযুক্ত। তবে পোশাক নিয়ে খুব বেশি পরীক্ষা-নিরীক্ষা করা যাবে না, তাহলে এক পর্যায়ে তা চাটুকারিতার পর্যায়ে পড়ে যাবে।

সময়মতো অফিসে আসা
জরুরি প্রয়োজন ছাড়া কখনই দেরি করে অফিসে আসা যাবে না। নিয়মানুবর্তি মানুষ যারা ঠিক সময়ে অফিসে আসেন, সময়মতো কাজ শুরু করেন, সবাই তাদের প্রশংসা করেন। আপনি যে অফিসের নিয়মের যথেষ্ট সচেতন এর মধ্য দিয়েই সেই ইতিবাচক ভাবমূর্তি তৈরি হয়।

প্রযুক্তি জ্ঞান-সম্পন্ন হোন
বর্তমান যুগে প্রযুক্তিতে অদক্ষ লোকদের কেউ চাকরি দিতে চায় না। অফিসের মূল কাজগুলো করার জন্য কম্পিউটার-ল্যাপটপ চালানোয় দক্ষ কর্মীদের বড্ড দরকার পড়ে। আর আপনার কাজের ক্ষেত্র যদি প্রযুক্তি নির্ভর হয় থাকে, তাহলে তো প্রযুক্তিতে অবশ্যই দক্ষ হতে হবে।

সব কাজে আগে থাকুন
অফিসের যেকোনো কাজে আগে থাকুন এবং সবার আগে কাজ করার উদ্যোগ নিন। অফিস হলো প্রতিযোগিতার জায়গা। যারা এখানে কঠোর পরিশ্রম করে, তারাই টিকে থাকে। কাজের প্রতি আপনার দৃঢ়তা বসের কাছে আপনার ইতিবাচক ভাবমূর্তি তৈরি করবে।

বসের লক্ষ্য অর্জনে সহযোগিতা করুন
বসের লক্ষ্য অর্জনে পেশাদারিভাবে বিশ্বস্ত এবং নিষ্ঠাবান সহযোগী হোন। যখন বসের লক্ষ্য অর্জন জরুরি হয়ে পড়ে, তখন আপনি সঠিক কাজটি করছেন কিনা এবং বস আপনার কাছ থেকে যা চান, তা করতে পারছেন কিনা সেটি জরুরি। আপনি যখন বসের প্রত্যাশা পূরণ করতে পারবেন, তখনই আপনার প্রতি বস খুশী হবেন।

শেখার প্রতি আগ্রহ
কর্মক্ষেত্রে নতুন কিছু শেখা এবং জানার সুযোগ তৈরি হলেই নিজের আগ্রহের কথা প্রকাশ করুন। কম জানা বিষয়ও একসময় দীর্ঘমেয়াদে আপনার জন্য কল্যাণ বয়ে আনবে। এর ফলে আপনার বস বুঝতে পারবে যে আপনি শিখতে আগ্রহী এবং দ্রুত শিখতে পারেন।

সৎ থাকুন
কর্মক্ষেত্রে সৎ থাকা খুব কাজে দেয়। বসের কাছে কখনই মিথ্যা বলার মতো ভুল করবেন না। কারণ, বেসর কাছে আপনার ভাবমূর্তি নষ্টের জন্য এটিই যথেষ্ট। নিজের কাজে সৎ থাকুন এবং সবসময় নিজের ধারণার কথা জানান, যেন কোনো ভুল বা ভুলবোঝাবুঝির সুযোগ তৈরি না হয়।

আপনার মতামত লিখুন :