স্ত্রীকে নিয়ে কিছু বললে আইনগত ব্যবস্থা: ক্রিকেটার নাসির

0
52

ডিভোর্স পেপার ছাড়াই অন্যের স্ত্রীকে বিয়ে করার অভিযোগে ক্রিকেটার নাসির হোসেন ও তামিমা সুলতানা তাম্মির বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। বুধবার ঢাকা মহানগর হাকিম মোহাম্মদ জসীমের আদালতে তামিমার সাবেক স্বামী রাকিব হাসান বাদী হয়ে এ মামলা করেন। অন্যদিকে মামলার দিন বিকালে স্ত্রী তাম্মিকে নিয়ে সংবাদ সম্মেলনে হাজির হন নাসির হোসেন।
সংবাদ সম্মেলনে নাসির বলেন, ‘তামিমা তাম্মি এখন আমার স্ত্রী। সে এখন তামিমা হোসেন। তাকে কিছু বলা মানে আমাকে বলা। আমি জাতীয় দলের ক্রিকেটার। অনেকে আমাকে পছন্দ করেন, অনেকে পছন্দ করেন না।

এসব আমি মেনে নেই। কিন্তু আমার স্ত্রীকে নিয়ে অহেতুক কিছু বললে আমি ছেড়ে দেবো না। প্রয়োজনে আইনগত ব্যবস্থা নিবো। নাসিরের আইনজীবি তামিমার আগের স্বামী রাকিবের বিরুদ্ধে মানহানি মামলা করার কথা বলেন।

সংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তাম্মি বলেন, ‘২০১৭ সালে রাকিবের সঙ্গে আমার ডিভোর্স হয়। এরপর আমি নাসিরের সঙ্গে রিলেশনে জড়াই। ২০১৯ সালের শুরুর দিকে নাসির আমার সঙ্গে তার একটি ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে দেয়। তখন এই ছবি নিয়ে অনেক আলোচনা সমালোচনা হয়। তখনই নাসির আমাকে বিয়ে করার ঘোষণা দেয়। তাহলে হুট করে কিভাবে আমরা বিয়ে করলাম।’
মেয়ের সঙ্গে যোগাযোগ আছে কিনা জানতে চাইলে তামিমা তাম্মি বলেন, ‘আমার মেয়ের সঙ্গে আমার সব সময় যোগযোগ ছিল। ২০১৯ সাল পর্যন্ত মেয়ে আমার সঙ্গে ছিল। কিন্তু ২০১৯ সালের রাকিব কাউকে কিছু না জানিয়ে মেয়েকে নিয়ে যায়। তখন আমি ফ্লাইটে ছিলাম। মা আমার সঙ্গে যোগাযোগ করতে না পেরে থানায় জিডি করে। আমি দেশের বাইরে থাকায় তখন আইনি ব্যবস্থা নিতে পারিনি।

আপনার মতামত লিখুন :