করোনা নিয়ে ঘ্যানঘ্যানানি বন্ধ করুন : বলসোনারো

0
104

করোনাভাইরাস নিয়ে ব্রাজিলিয়ানদের ‘ঘ্যানঘ্যানানি’ বন্ধ করতে বলেছেন দেশটির প্রেসিডেন্ট জইর বলসোনারো। ভাইরাসের সংক্রমণ রোধে ব্রাজিলের বিভিন্ন শহর ও রাজ্যে যেসব পদক্ষেপ নেয়া হচ্ছে তারও সমালোচনা করেছেন বলসোনারো। খবর বিবিসির।

সম্প্রতি ব্রাজিলে করোনায় আক্রান্ত ও মৃত্যুর সংখ্যা অনেক বেড়ে গেছে। গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় মৃত্যুতে নতুন রেকর্ড হয়েছে। মহামারির সবচেয়ে খারাপ সময় পার করছে দেশটি। এর ফলে সেখানকার স্বাস্থ্য ব্যবস্থা তীব্র সংকটের মুখে পড়েছে। সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে কিছু শহর ও রাজ্য নিজ উদ্যোগে বিধিনিষেধ আরোপ করেছে।

মহামারি পরিস্থিতির এই দুর্দশার মধ্যেই এমন মন্তব্য করলেন প্রেসিডেন্ট বলসোনারো। ভাইরাস সংক্রান্ত হুমকিকে বরাবরই খাটো করে দেখেছেন তিনি, সাম্প্রতিক মন্তব্যে সেই পুরনো দৃষ্টিভঙ্গিই আবার প্রকাশ করলেন।

বৃহস্পতিবার এক অনুষ্ঠানে বলসোনারো বলেন, ‘ঘ্যানঘ্যানানি বন্ধ করুন। এটা নিয়ে আর কতো কান্নাকাটি করবেন আপনারা? আর কতকাল আপনারা বাসায় থাকবেন এবং সবকিছু বন্ধ করে রাখবেন? এটা কেউ আর নিতে পারছে না। মৃত্যুর জন্য আমরা আবারও আফসোস করছি, কিন্তু আমাদের একটা সমাধান লাগবে।’

বলসোনারো যেভাবে মহামারি সামাল দিচ্ছেন তা নিয়ে সমালোচনা করে আসছেন সাও পাওলোর গভর্নর জোয়াও ডোরিয়া। ‘যেসব গভর্নর ও মেয়র ভ্যাকসিন কিনতে চান এবং দেশকে সহায়তা করতে চান’ তাদের আক্রমণ করায় বলসোনারোকে ‘উন্মাদ ব্যক্তি’ হিসেবে উল্লেখ করেন ডোরিয়া।

ডোরিয়া বলেন, ‘প্রতিদিন মানুষকে মরতে দেখে আমরা কীভাবে সমস্যার মোকাবিলা করব? ব্রাজিলের স্বাস্থ্য ব্যবস্থা ভেঙে পড়ার কিনারায় এসে ঠেকেছে।’

গভর্নররা সংক্রমণ ঠেকাতে কোয়ারেন্টাইন আরোপ করায় তাদের নিয়মিত সমালোচনা করে চলেছেন বলসোনারো। তার মতে, ভাইরাস যা ক্ষতি করছে তার চেয়ে এসব পদক্ষেপের ফলে অর্থনীতিতে বেশি ক্ষতি হবে।

এ প্রসঙ্গে গভর্নর ডোরিয়া বলেন, ‘দুঃখজনকভাবে, ব্রাজিলকে এ মুহূর্তে দু’টি ভাইরাস মোকাবিলা করতে হচ্ছে: করোনাভাইরাস এবং বলসোনারো ভাইরাস। ব্রাজিলিয়ানদের জন্য এটা দুঃখজনক ব্যাপার।’

আপনার মতামত লিখুন :