ফতুল্লায় ডাকাতিকালে ৭ কিশোরকে আটক করে পুলিশে সোপর্দ

0
101

নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লা উপজেলার বক্তাবলীতে সাত ডাকাতকে গণপিটুনি দিয়ে পুলিশে সোপর্দ করেছে ইটভাটার শ্রমিকরা। শুক্রবার ভোর রাতে বক্তাবলীর চর রাজাপুরস্থ ধলেশ্বরী ব্রিক ফিল্ড নামক ইটভাটায় এ ঘটনা ঘটে। এ সময় তাদের কাছ থেকে দেশীয় অস্ত্র উদ্ধার করা হয়।

এ ঘটনায় ইটভাটার ম্যানেজার মো: আদিল ডাকাতির চেষ্টার অভিযোগ এনে শুক্রবার দুপুরে ফতুল্লা মডেল থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন।

আটককৃতরা হলো- ফতুল্লা থানার শাসনগাঁও প্রাইমারি স্কুল সংলগ্ন গনি মিয়ার ভাড়াটিয়া তমিজ প্রামানিকের ছেলে মো: মোতাব্বির ওরফে মাসুম (১৯), একই থানার মুসলিমনগর আমেনা সুপার মার্কেট সংলগ্ন হালিম মিয়ার ভাড়াটিয়া আবুল কালামের ছেলে মো: সুইট ওরফে মাহিম (১৮), কাশীপুর মধ্যপাড়ার মোশাররফ হোসেনের ছেলে মো: মেহেদী হাসান ওরফে শান্ত (১৮), মুসলিমনগর সাত ভাই মার্কেট সংলগ্ন আইনুল ইসলামের ছেলে শিপন (১৮), কাশিপুর জামান ফার্মেসী গলির হাবিবুরের ভাড়াটিয়া মৃত বাবুল মিয়ার ছেলে সাইফুল (১৯), একই এলাকার খোকন সরদারের ভাড়াটিয়া সরব আলীর ছেলে মো: হৃদয় শেখ (১৮) ও একই বাড়ির ভাড়াটিয়া মো: বাবুল মোল্লার ছেলে নয়ন মোল্লা (১৮)।

বাদির লিখিত অভিযোগে জানা যায়, শুক্রবার ভোররাত সাড়ে ৪টার দিকে আটককৃত সাতজনসহ ১০/১১ জনের একটি দল অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে ওই ইটভাটায় প্রবেশ করে নিরাপত্তারক্ষী মো: হোসেনকে (৪৫) ঘিরে ধরে এবং ধারালো ছুরি দিয়ে আঘাতের চেষ্টা করে। এ সময় ওই নিরাপত্তারক্ষীর ডাক-চিৎকারে ইটভাটায় কর্মরত শ্রমিকেরা ঘটনাস্থলে ছুটে এসে চারদিক থেকে ডাকাত দলকে ঘিরে ফেলে। অবস্থা বেগতিক বুঝতে পেরে ১০/১১ জনের ডাকাত দল পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে। তবে শ্রমিকরা এদের সাতজনকে ধরে ফেলে। পরে পুলিশকে সংবাদ দিলে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে তাদেরকে আটক করে ফতুল্লা থানায় নিয়ে আসে। এ সময় তাদের কাছ থেকে একটি অত্যাধুনিক সুইচ গিয়ার ও তিনটি মোবাইল ফোন উদ্ধার করা হয়েছে বলে জানায় পুলিশ।

এ বিষয়ে ফতুল্লা মডেল থানার ইনচার্জ রকিবুজ্জামান জানান, অভিযোগ পেয়েছি। আটক ব্যক্তিরা সম্ভবত ছিনতাইকারী চক্রের সদস্য। অভিযোগ তদন্ত করে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।

আপনার মতামত লিখুন :