ঈদের অস্ত্রবিরতিতেও আফগানিস্তানে বোমায় ১১ জনের মৃত্যু

0
110

পবিত্র ঈদুল ফিতর উপলক্ষে তিন দিনের ‘অস্ত্রবিরতি’ পালন করেছে তালেবান ও আফগান সরকার। অথচ তাদের এ ঘোষণার কয়েক ঘণ্টা পরেই আফগানিস্তানের বিভিন্ন স্থানে বোমা বিস্ফোরণে অন্তত ১১ জন বেসামরিক নাগরিকের মৃত্যু হয়েছে। আহত হয়েছেন আরও ১৩ জন। স্থানীয় কমকর্তারা বার্তা সংস্থা রয়টার্সকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

যদিও অস্ত্রবিরতির প্রথম দিন দেশটির কোথাও তালেবান ও সরকারি বাহিনীর মধ্যে সরাসরি সংঘর্ষের খবর পাওয়া যায়নি, তবে রাস্তায় বোমার আঘাতে নিরীহ মানুষের প্রাণহানি থেমে নেই।

আফগানিস্তানের দক্ষিণাঞ্চলীয় কান্দাহার প্রদেশের পুলিশের মুখপাত্র জামাল নাসির বারেকজাই জানিয়েছেন, সেখানকার পাঞ্জওয়াই জেলায় রাস্তার পাশে থাকা বোমা একটি গাড়িতে আঘাত করলে পাঁচজন নিহত হন। এদের মধ্যে একজন নারী ও শিশু রয়েছে।

একই প্রদেশের মাইওয়ান্দ জেলায় একটি ট্যাক্সির নিচে বোমা বিস্ফোরিত হয়ে দুই শিশু নিহত এবং আরও তিন ব্যক্তি গুরুতর আহত হয়েছেন।

উত্তরাঞ্চলীয় কুন্দুজ প্রদেশের পুলিশ প্রধানের মুখপাত্র জানিয়েছেন, সেখানে একটি বেসামরিক গাড়িতে লাগানো বোমা বিস্ফোরিত হয়ে দুইজন নিহত এবং আরও ১০ জন আহত হয়েছেন।

একই দিন আফগানিস্তানের মধ্যাঞ্চলীয় গজনী প্রদেশে রাস্তার পাশে পুঁতে রাখা বোমা বিস্ফোরণে আরও দুইজন নিহত হয়েছেন।

সম্প্রতি আফগানিস্তান থেকে সব মার্কিন সেনা প্রত্যাহারের ঘোষণা দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। আগামী ১১ সেপ্টেম্বরের মধ্যে এশিয়ার দেশটি থেকে সব সেনা সরিয়ে নেয়া হবে বলে জানিয়েছে বাইডেন প্রশাসন। তবে তাদের এ ঘোষণার পর থেকেই আফগানিস্তানে সহিংসতা ব্যাপকহারে বেড়ে গেছে।

এর মধ্যে ঈদুল ফিতর উপলক্ষে তিন দিন অস্ত্রবিরতি পালনের প্রস্তাব দেয় তালেবান। তাতে রাজি হয় আফগান সরকারও। তবে তাদের এই সাময়িক সমঝোতায় প্রাণহানি বন্ধ হয়নি।

আপনার মতামত লিখুন :