আঘাত হানতে চলেছে ঘূর্ণিঝড় ইয়াস: আমফানের চাইতে কি ইয়াস শক্তিশালী?

0
133

গত বছরের ২০ উপকূলবর্তী জেলাগুলোতে আঘাত হেনেছিল আমফান। আবার এ বছর মে মাসের ২৬ তারিখ আঘাত হানতে চলেছে ঘূর্ণিঝড় ইয়াস।

এবারের ঘূর্ণিঝড় বাংলাদেশের আগেই আঘাত হানবে ভারতে।

ভারতীয় আবহাওয়াবিদরা বলছেন, এখনও পূর্ব-মধ্য বঙ্গোপসাগরে নিম্নচাপটি রয়েছে। এই নিম্নচাপটির ব্যাসার্ধ ৬০০ কিলোমিটার। আমফানের ব্যাসার্ধ ছিল ৪৫০ কিলোমিটার। কাজেই নিম্নচাপ হিসেবে আমফানের চাইতে আয়তনে অনেকটাই বড় ইয়াস।

আগামী ১৮ ঘণ্টায় এই নিম্নচাপটি ঘূর্ণিঝড়ে পরিণত হবে। এরপর ২৬ তারিখ ভোররাতে এটি দিঘা ও সাগরের মাঝামাঝি জায়গায় আছড়ে পড়বে। তারা বলছেন, এই সাইক্লোনটি উত্তরমুখী হয়ে ধেয়ে আসছে। ২৪ মে’র আগেই এই নিম্নচাপটি সাইক্লোনের চেহারা নেবে। ২৪ তারিখের পর ইয়াস সিভিয়ার সাইক্লোনের চেহারা নেবে।

যেহেতু আমফানের চাইতে ইয়াসের আয়তন বড়, তাই এটি বড় আকারের ঘূর্ণিঝড়ের চেহারা নেয়ার প্রবল আশঙ্কা রয়েছে। ২৭ তারিখ অতিভারী বৃষ্টি হতে পারে উত্তর ও দক্ষিণবঙ্গে।

ভারতীয় আবহাওয়াবিদরা আরও জানিয়েছেন, এই ইয়াসের ব্যাসার্ধ ৬০০ কিলোমিটার, অর্থাৎ ইয়াস প্রায় ১২০০ কিলোমিটার জায়গা জুড়ে যাবে। ঝড়ের অভিমুখ যেহেতু উত্তরমুখী, তাই কলকাতার ওপর দিয়ে ইয়াস অতিক্রম করবে। এরপর সেটি হুগলি,বর্ধমান, মুর্শিদাবাদ, মালদাহ হয়ে বাংলাদেশে প্রবেশ করবে।

এটির সাগরে ১৩০ থেকে ১৪৫ কিলোমিটার প্রতি ঘণ্টায় বেগ থাকলেও ১৬০ থেকে ১৮০ কিলোমিটার প্রতি ঘণ্টা গতিবেগ নিয়ে ইয়াস আছড়ে পড়বে উপকূলে। যেহেতু আমফানের চাইতে ইয়াসের ব্যাস বেশি, তাই মনে করা হচ্ছে এই সাইক্লোনের তীব্রতা আমফানের চাইতে বেশি হবে।

সূত্র : সংবাদ প্রতিদিন

আপনার মতামত লিখুন :