স্বামীর সৎকারে জিন্স প্যান্ট পরেছেন অভিনেত্রী, এ নিয়ে তোলপাড়

0
84

শোকবার্তা, প্রশংসা ফের সমালোচনা। স্বামীর মৃত্যু পর থেকে সবই পাচ্ছেন অভিনেত্রী ও সঞ্চালক মন্দিরা বেদী। গত বুধবার ভোর বেলা মন্দিরার স্বামী পরিচালক-প্রযোজক রাজ কৌশল চট্টোপাধ্যায় শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন। হৃদরোগে আত্রান্ত হয়েছিলেন তিনি।

শবদেহ বার করে আনা থেকে শুরু করে অ্যাম্বুল্যান্সে দেহ তোলা পর্যন্ত সমস্ত কিছুতে অংশ নিয়েছেন মন্দিরা৷ সেসব ছবি ও ভিডিও ছড়িয়ে প়়ড়েছে নেটমাধ্যমে।

শেষকৃত্যের আগের একাধিক ছবি নেটাগরিকদের সামনে এসেছে। সেখানে দেখা গেছে, মন্দিরা নিজের স্বামীর দেহের পাশ ছেড়ে যেতে চাইছেন না। তার দেহ কাঁধে তোলা থেকে শুরু করে, নিয়ম অনুযায়ী, আগুনের মালসাও হাতে তুলে নেন তিনি।

রাজের মৃত্যুর কয়েক ঘণ্টা পরে নেটমাধ্যম ভরে ওঠে শোকবার্তায়। তার সঙ্গে পাল্লা দিয়ে বাড়তে থাকে প্রশংসাও। সাধারণত শবদেহ কাঁধে তোলার দায়িত্ব থাকে পরিবারের পুরুষ সদস্যদের উপর। কিন্তু পিতৃতন্ত্রের মুখে ছাই দিয়ে সেই রীতি ভেঙে দিলেন মন্দিরা বেদী। স্বামীকে কাঁধ দেওয়ার দৃষ্টান্তে তাই মুগ্ধ হয়েছিল একাংশ নেটপাড়া।

কিন্তু সৎকারের সময়ে টি-শার্ট ও জিন্স এবং স্বামীকে কাঁধ দেওয়া নিয়ে সমালোচনায় নেমে পড়লেন নেটাগরিকের একাংশ। অনেকে নানা কথায় মন্দিরাকে আক্রমণও করছেন।

কারও বক্তব্য, ‘হিন্দু ধর্মে স্বামীর সৎকারে অংশগ্রহণ করেন না স্ত্রী। শ্মশানে যাওয়াও বারণ। এখানে এ সব কী হচ্ছে! কেউ কিছু বলছেও না।’

কেউ বলছেন, স্বামীর মৃত্যুর পরে সাদা টি-শার্ট আর জিন্স পরে সেজে বাড়ির বাইরে বেরিয়েছেন মন্দিরা। কেউ আবার সাদা শাড়ি না পরার জন্য তোপ দাগলেন অভিনেত্রীকে। জনৈক নেটাগিরক মন্দিরার ‘অভিনয়’-এর জন্য অস্কার দেওয়ার প্রস্তাব দিলেন।

এসবের ভিড়ে অনেকে মন্দিরার পাসগে আছেন। গায়িকা সোনা মহাপাত্র। শুক্রবার সন্ধেবেলা টুইট করে সমালোচনার প্রতিবাদ করলেন তিনি। সোনা লেখেন, ‘কিছু মানুষ এখনও মন্দিরা বেদীর পোশাক এবং স্বামী রাজ কৌশলের শেষকৃত্যে তার অংশগ্রহণ নিয়ে মন্তব্য করে চলেছেন। এ সবে আমাদের অবাক হওয়া উচিত নয়। মূর্খামিই তো বিশ্বের অন্যতম সংখ্যাগরিষ্ঠ উপাদান।’

আপনার মতামত লিখুন :