ভেনেজুয়েলায় অপরাধী গোষ্ঠীর সঙ্গে সংঘর্ষ, পুলিশসহ নিহত ২৬

0
56

ভেনেজুয়েলার রাজধানী কারাকাসে উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলে চলতি সপ্তাহে একটি অপরাধী গোষ্ঠীর সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষে কমপক্ষে ২৬ জন নিহত হয়েছেন। নিহতদের মধ্যে চার পুলিশ কর্মকর্তা রয়েছেন বলে জানা গেছে। গত কয়েকদিন ধরে চলা এসব সংঘর্ষের ঘটনায় আরও ৩৮ জন আহত হয়েছেন বলে দেশটির স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী কারমেন মেলেনদেজ নিশ্চিত করেছেন। খবর রয়টার্সের।

রাজধানীর উত্তরপশ্চিমাঞ্চলে গত কয়েকদিন ধরেই ব্যাপক গোলাগুলির ঘটনা ঘটছে। সংঘর্ষের কারণে ওই অঞ্চলের বাসিন্দারা নিজেদের বাড়ি-ঘর ছেড়ে পালিয়ে যেতে বাধ্য হচ্ছেন। ফলে প্রতিবেশী কয়েকটি এলাকায় তীব্র যানজট সৃষ্টি হয়েছে।

একটি অপরাধী গোষ্ঠী শহররের কোটা ৯০৫ এলাকার বাইরে নিজেদের নিয়ন্ত্রণ বিস্তৃত করার চেষ্টা করলে স্থানীয় কর্তৃপক্ষ তাদের হটিয়ে দেয়। এরপরেই দুপক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ শুরু হয়।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী কারমেন মেলেনদেজ জানান, সংঘর্ষে ১০ পুলিশ কর্মকর্তা আহত এবং ২২ অপরাধী নিহত হয়েছেন। এছাড়া ২৮ জন বেসামরিক আহত এবং আরও কয়েকজন নিহত হয়েছেন বলে জানিয়েছেন তিনি। তবে কতজন বেসামরিক নিহত হয়েছেন তা নির্দিষ্ট করে জানানো হয়নি।

মানবাধিকার কর্মীরা বলছেন, চলতি সপ্তাহে সংঘর্ষ চলাকালে ছিটকে আসা গুলিতে চার বেসামরিক নিহত হয়েছেন। দীর্ঘদিন ধরেই অপরাধ দমনে চালানো অভিযানগুলোতে বেসামরিক হতাহতের বিষয়টি উপেক্ষা করা ও এই সংখ্যা আড়াল করার জন্য প্রেসিডেন্ট নিকোলাস মাদুরোর বিরুদ্ধে অভিযোগ করে আসছেন ভেনেজুয়েলার সরকারবিরোধী আন্দোলনকারী ও বিরোধী রাজনীতিকরা।

মাদুরো সরকারের বিরুদ্ধে তাদের অভিযোগ, সহিংসতার মাত্রা কম রাখার জন্য কারাকাসের কয়েকটি এলাকার অপরাধী গোষ্ঠীর সঙ্গে চুক্তি করেছে সরকার। পুলিশের জন্য প্রবেশ নিষিদ্ধ কিছু এলাকাও তৈরি করা হয়েছে। তথাকথিত এসব ‘পিস জোন’ অপরাধী দলগুলোকে ক্ষমতা সংহত করার ও সম্পদের ওপর একচ্ছত্র নিয়ন্ত্রণ প্রতিষ্ঠা করার সুযোগ করে দিয়েছে বলেও অভিযোগ রয়েছে।

আপনার মতামত লিখুন :