ফতুল্লায় কিশোর গ্যাংয়ের ছুরিকাঘাতে পোশাক শ্রমিক নিহত

0
73

নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলার ফতুল্লায় পাওনা টাকার জন্য কিশোর গ্যাংয়ের ছুরিকাঘাতে মাসুদ (২৬) নামের এক পোশাক শ্রমিক নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় সোহেল (২৫) নামের গ্যাংয়ের এক সদস্যকে ধরে পুলিশে দেন স্থানীয়রা। পরে জিজ্ঞাসাববাদের জন্য তার বাবা আইয়ু্ব আলীকেও আটক করে পুলিশ।

শনিবার (২৪ জুলাই) দুপুর সোয়া ১২টায় ফতুল্লার পাগলা নয়ামাটিস্থ লাবণী ফুড কারখনার সামনে এ হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটে।

নিহত মাসুদ চাঁদপুর হাইমচর এলাকার রফিকুল ইসলামের ছেলে। তিনি পরিবারের সঙ্গে ফতুল্লার পাগলা নয়ামাটির তাজুর মাঠ সংলগ্ন রুহুল আমিন মিয়ার ভাড়াটিয়া বাসায় বসবাস করেন।

পুলিশ জানায়, মাসুদের কাছে কিছু টাকা পেতো কিশোর গ্যাং গ্রুপের সদস্য সোহেলের এক ভাই। সেই টাকার জন্য দুদিন আগে মাসুদকে চাপ দেয় সোহেলসহ গ্যাংয়ের অন্য সদস্যরা।

jagonews24

পরে শনিবার দুপুর সোয়া ১২টার দিকে উল্লেখিত লাবণী ফুড কারখানার সোহেলের নেতৃত্বে কিশোর গ্যাংয়ের সদস্যরা মাসুদের রাস্তা গতিরোধ করে মারধর করে। এসময় তাদের মধ্যে ধস্তাধস্তি হয়। একপর্যায়ে গ্যাংয়ের একজন হাতে থাকা ছুরি দিয়ে মাসুদের পেটে আঘাত করেন। এতে তিনি মাটিতে লুটে পড়েন।

পরে স্থানীয়রা তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে নিলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

ফতুল্লা মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রকিবুজ্জামান জানান, ঘটনার পর সোহেলকে আটক করা হয়েছে। তার বাবাকেও জিজ্ঞাসাবাদের জন্য থানায় আনা হয়েছে। আর হত্যাকাণ্ডে ব্যবহার করা ছুরিও জব্দ করা হয়েছে। মরদেহ ঢামেক হাসপাতালের মর্গে রয়েছে। হত্যাকাণ্ডে জড়িতদের কাউকে ছাড় দেয়া হবে না।

আপনার মতামত লিখুন :