বাংলাদেশে পদ্মফুল রপ্তানির আশা ভারতের

0
63

হিন্দুরীতি অনুসারে দুর্গাপূজার জন্য পদ্মফুল আবশ্যক। অন্য পূজাগুলোতেও এর চাহিদা কম নয়। এ কারণে ভারতের বিভিন্ন অঞ্চলে বাণিজ্যিকভাবে পদ্ম চাষ হয়ে থাকে। তা দিয়ে স্থানীয় চাহিদা মেটানোর পাশাপাশি এ বছর বাংলাদেশেও রপ্তানির আশা করছেন ভারতীয় চাষিরা।

মঙ্গলবার (৫ অক্টোবর) ভারতীয় দৈনিক দ্য স্টেটসম্যানের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, পশ্চিমবঙ্গের মালদা জেলায় চাষ হওয়া পদ্ম বাংলাদেশে ‘ভালো দামে’ রপ্তানি হওয়ার জন্য পুরোপুরি প্রস্তুত। মহাদিপুর এক্সপোর্টার্স অ্যাসোসিয়েশনের জয়েন্ট সেক্রেটারি ও ইংলিশ বাজারের সুস্থানী মোড় এলাকার একটি কোল্ড স্টোরেজের মালিক উজ্জ্বল সাহা জানিয়েছেন, কৃষকরা পূজা উপলক্ষে সঞ্চয়ের জন্য পদ্ম পাঠানো শুরু করেছেন।

তিনি বলেন, দুর্গাপূজায় ১০৮টি পদ্মের প্রয়োজন, আশ্বিন-কার্তিক মাসে বিভিন্ন পূজাতেও এর চাহিদা রয়েছে। উড়িষ্যাসহ নানা এলাকা থেকে বিপুল পদ্ম রপ্তানি হয়। এবার মালদা জেলাতেও এর ব্যাপক চাষ হয়েছে।

jagonews24

উজ্জ্বল সাহা জানান, এ বছর ভারতের আসাম, ঝাড়খণ্ড, বিহার, উত্তর প্রদেশের পাশাপাশি বাংলাদেশেও পদ্মফুল রপ্তানির উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। এরই মধ্যে বাংলাদেশের কিছু আমদানিকারক পদ্ম কিনতে আগ্রহ প্রকাশ করেছেন বলে জানিয়েছে তিনি।

স্থানীয়দের বরাতে ভারতীয় সংবাদমাধ্যমটি জানিয়েছে, অতীতে উড়িষ্যা থেকে মালদায় পদ্ম আমদানি হতো, যা সরাসরি পাইকারি বিক্রেতাদের কাছে যেতো। তাদের কাছ থেকে ফুল কিনতে হতো পূজা কমিটিগুলোকে। প্রতি পিস পদ্ম উৎপাদনে সাড়ে চার রুপি খরচ হয়, তবে এখন তা বিক্রি হচ্ছে আট থেকে ১০ রুপিতে।

মালদার দুই পদ্ম চাষি বলেন, এ বছর পাইকারি বিক্রেতাদের কাছে পাঠানোর পাশাপাশি অনেক ব্যবসায়ী ফুল রপ্তানির জন্যেও যোগাযোগ করছেন। এজন্য আমরা আশা করছি, এ বছর পদ্ম থেকে বেশ ভালো লাভ করা যাবে।

আপনার মতামত লিখুন :