লাল-সবুজ শাড়িতে বিজয়ের সাজ

0
36

বিজয় দিবস বাঙালি জাতির কাছে গৌরবময় ও অবিস্মরণীয় একটি দিন। প্রতিবছর ১৬ ডিসেম্বর পালিত হয় বিজয় দিবস। এটি আমাদের আনন্দের দিন। ৩০ লাখ বাঙালির রক্তের বিনিময়ে আমরা স্বাধীন বাংলাদেশ পেয়েছি। এই ডিসেম্বরেই পাক বাহিনীমুক্ত হয় স্বাধীন এই বাংলা।

এ মাসেই বাংলার আকাশে ওড়ানো হয় লাল-সবুজের পতাকা। বিজয় দিবস উদযাপনে তাই ছোট-বড় সবাই গায়ে জড়িয়ে নেন লাল-সবুজ পোশাক। বিজয় দিবসের ফ্যাশনে প্রাধান্য পায় লাল আর সবুজ এই দুটি রং। বাঙালি নারীরা তাই এদিন লাল-সবুজ শাড়িতে অনন্যা হয়ে ওঠে।

jagonews24

বিশেষ এই দিনে বেশিরভাগ নারীই লাল-সবুজ শাড়ি পরতে ভালোবাসেন। আপনিও যদি সেই দলে হন, তাহলে বিজয় দিবসে কীভাবে সাজবেন তা জানিয়েছেন মেকআপ আর্টিস্ট নুফসাত রিফা-

১. মেকআপের আগে ফেসওয়াশ দিয়ে মুখ ধুয়ে স্ক্রাবিং করে নিন প্রথমে। এরপর একটি শীট মাস্ক লাগিয়ে নিন। এর কিছুক্ষণ পর সানস্ক্রিন ব্যবহার করুন মুখে। এটি অবশ্যই ব্যবহার করতে হবে।

২. মেকআপ লং লাস্টিং বা দীর্ঘস্থায়ী করতে ও ত্বক আর্দ্র রাখতে একটি ময়েশ্চারাইজার ব্যবহার করুন। এ ছাড়াও স্কিনের পোরসগুলো ঢাকতে অবশ্যই ভালো একটি প্রাইমার ব্যবহার করতে হবে। অল্প একটু প্রাইমার মুখে ভালো করে আঙুলের সাহায্যে লাগিয়ে নিন।

jagonews24

৩. ত্বকের যেখানে যেখানে পিগমেন্টেশন আছে, সেসব স্থানে কালার কারেক্টার লাগিয়ে ব্রাশ/স্পঞ্জের সাহায্যে ব্লেন্ড করে নিতে হবে খুব ভালোভাবে। এতে করে স্কিনের পিগমেন্টেশন ঢাকবে ও ফাউন্ডেশনটাও খুব ভালোভাবে বসবে।

বেইজ মেকআপের জন্যে ভারী কোনো কিছু বেছে না নেওয়াই ভালো। তাই ভারি ফাউন্ডেশন এক্ষেত্রে ব্যবহার না করাই ভালো। তাই বেইজ মেকআপের জন্য বেছে নিন ভালো কোনো লাইটওয়েট ও মিডিয়াম টু ফুল কভারেজ ফাউন্ডেশন। যা আপনার স্কিনের সঙ্গে মানানসই হবে।

৪. এরপর ফেইস হাইলাইট করার জন্য ফাউন্ডেশেনের চেয়ে ১-২ শেড লাইট বা উজ্জ্বল একটি কন্সিলার ব্যবহার করুন। এটি চোখের নিচে, নাকের উপরে, কপালে, থুতনিতে লাগিয়ে হাইলাইটিং করে নিন।

jagonews24

৫. এবার কন্সিলার সেট করে নিতে হবে লুজ পাউডারের সাহায্যে। শীতকালে ফেইস বেকিং না করাই ভালো। কনট্যুরিং করে নিন হালকাভাবে।

৬. এরপর গালে লাগিয়ে নিন ব্লাশ। এটি লাগানোর সময় হালকা করে হেসে নিন। এতে ব্লাশ লাগাতে সুবিধা হবে। ব্লাশের ক্ষেত্রে কোরাল, পিংক, ব্রাউন ইত্যাদি কালার ব্যবহার করতে পারেন। মুখে গ্লোয়িং লুক পেতে হাইলাইার ব্যবহার করুন।

৭. আইলুকের জন্য প্রথমে একটি ট্রান্জিশন শেড ব্যবহার করতে হবে প্রথমে। বিজয়ের সাজটি ফুটিয়ে তুলতে লাল ও সবুজ ব্যবহার করতে পারেন। কন্সিলারের সাহায্যে ফুল কাট ক্রিস করে নিন এক্ষেত্রে।

jagonews24

সবুজ আইশ্যাডো ব্যবহার করে আইলাইনারের মতো করে নিন। চোখের নীচের অংশে ব্যবহার করুন লাল শেড। একটি আইল্যাশ কার্লার এর মাধ্যমে চোখের পাপড়ি কার্ল করে নিন।

সবশেষে মাশকারা লাগিয়ে আই শেইপ এর সঙ্গে মানানসই একটি আইল্যাশ ব্যবহার করুন। এতে চোখের সাজ ফুটে উঠবে।

৮. মেকআপের শেষে সেটিং স্প্রে লাগাতে কিন্তু একদমই ভুলবেন না। কারণ এটি মেকআপকে সারাদিন সেট রাখতে সাহায্য করবে।

আপনার মতামত লিখুন :