নারায়ণগঞ্জে বাস-ট্রেন মুখোমুখি সংঘর্ষ, নিহত ৪

0
31

যাত্রীবাহী বাসের সাথে চলন্ত ট্রেনের মুখোমুখি সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় ঘটনাস্থলেই তিন এবং হাসপাতালে নেওয়ার পরে আরও একজনের মৃত্যু হয়েছে। কমপক্ষে ১০জন আহত হওয়ার সংবাদ পাওয়া গেছে। তবে তাৎক্ষণিকভাবে আহতদের নাম-ঠিকানা পাওয়া যায়নি।

রবিবার (২৬ ডিসেম্বর) সন্ধ্যা সোয়া ৬টার দিকে নারায়ণগঞ্জ শহরের ১ নম্বর রেলগেট এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। পরে রাত ৮টার দিকে দুর্ঘটনা কবলিত ট্রেনটিকে অন্যত্র সরিয়ে নেওয়া হয়।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, ১ নম্বর রেলগেট এলাকায় সন্ধ্যা ৬টার দিকে প্রচণ্ড জ্যামের সৃষ্টি হয়। সন্ধ্যা সোয়া ৬টার দিকে রেললাইনের উপর আনন্দ পরিবহনের একটি বাস (ঢাকা মেট্রো- ব: ১১-৪৩৭৪) এসে আটকে যায়। বাসটি জ্যামের কারণে রেললাইনের উপর থেকে সরে যেতে পারেনি। এ সময় ঢাকা থেকে ছেড়ে আসা দ্রুতগামী ট্রেনটি বাসটিতে সজোরে ধাক্কা দিলে ঘটনাস্থলেই ৩ জনের মৃত্যু হয়।

খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের সদস্যরা ঘটনাস্থলে এসে হতাহতদের উদ্ধার করে। আহতের নিকটস্থ হাসপাতালে পাঠানো হয়। হাসপাতালে নেওয়ার পর আরও একজনের মৃত্যু হয়। ঘটনার সময় ১ নম্বর রেলগেইটের ক্রসবারটি নামানো ছিল না। সাধারণ ট্রেন আসার আগেই লাইনম্যানের ক্রসবার নামানোর কথা। কিন্তু আজ তা করা হয়নি। আহতদের অবস্থা খুবই গুরুতর।

রেললাইনের অদূরে থাকা বেশ কয়েকজন দোকানদার জানান, আগের যেকোনো দিনের চাইতে আজকে ট্রেনের চালক ট্রেনটিকে দ্রুত চালিয়েছেন। নারায়ণগঞ্জের চাষাঢ়া থেকে ১ নম্বর রেলস্টেশন এলাকা খুবই ব্যস্ততম একটি সড়ক। এখানে ট্রেনচালকরা ট্রেনের গতি কমিয়ে ট্রেন পরিচালনা করে থাকে। কিন্তু আজকে ক্রসবার তো নামানো ছিলই না, অপরদিকে ট্রেনের চালকও ছিল বেপরোয়া।

আহতদের অবস্থা গুরুতর হওয়ায় তাদের স্থানীয় ও ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে বলে জানা গেছে। এ ব্যাপারে সদর মডেল থানার ওসি শাহ্ জামান বলেন, সন্ধ্যা আনুমানিক পৌনে ছয়টার দিকে আনন্দ পরিবহনের বাসের সাথে ঢাকা থেকে ছেড়ে আসা ট্রেনের সংঘর্ষ হয়। ঘটনার পরপরই ট্রেনের চালক গা ঢাকা দিয়েছে।

আপনার মতামত লিখুন :